সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জকিগঞ্জের সৌখিন মাহফুজের হেলিকপ্টার তৈরি চলছে : মে মাসে উড্ডয়ন

daily sylhet mahfuj zakigonj newsজকিগঞ্জ প্রতিনিধি: বাড়ির আঙিনায় হেলিকপ্টার তৈরিতে ব্যস্ত জকিগঞ্জের উত্তর কসনকপুর গ্রামের সৌখিন মাহফুজুল আলম। তিনি কালিগঞ্জ বাজারে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নানের পুত্র ও ব্যবসায়ী মরহুম রেজান আলীর নাতি। সিলেটের নর্থইষ্ট মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মাহফুজুল আলম এ বছরের ২৯জানুয়ারি হেলিকপ্টার তৈরির কাজ শুরু করেন। গাড়ির ইঞ্জিন ও প্রয়োজনীয় উপকরণ ইতোমধ্যে কেনেছেন তিনি। অনেক দূর এগিয়েও নিয়েছেন।

মাহফুজুল আলম বলেন, আগামী মে মাসে হেলিকপ্টার তেরির সব কাজ সম্পন্ন হবে। হেলিকপ্টার চালু হলে সময় বাঁচবে, কষ্ট কমবে এবং দেশের মর্যাদা বাড়বে। ভিয়েতনামের একটি কিশোর হেলিকপ্টার তৈরি করে। পাইলট নিয়ে হেলিকপ্টারটি আকাশে উড়ায়। সেই ভিডিও দেখে হেলিকপ্টার তৈরির ভাবনা আমার মাঝে আসে । হেলিকপ্টার তৈরির করতে ওয়েবসাইট নিয়ে প্রায় ৩০০ঘন্টা ঘাটাঘাটি শুরু করি। পেয়ে যাই অনেক তথ্য। যোগাযোগ করি বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন সংশ্লিষ্টদের সাথে। এর পরই হেলিকপ্টার তৈরির কাজ নিজ বাড়ির আঙ্গিনায় শুরু করি। কামরুল ইসলাম ও বাপ্পা চন্দ্র দাস দুই ওয়ার্কশপ কর্মীকে সাথে নিয়ে হেলিকপ্টার তৈরীর কাজ চলছে।

মূলত ২০১১ সালে ডিসকভারী চ্যানেলে একটা বিমান দুর্ঘটনার দৃশ্য দেখার পর থেকেই অনুসন্ধানে আগ্রহ সৃষ্টি হয়। ভিয়েতনামের সেই ছেলেটির সাহস বিমান তৈরীতে আমাকে উদ্দীপ্ত করে। হেলিকপ্টার সম্পূর্ণ তেরি হতে খরচ হবে সাত থেকে আট লাখ টাকা। তবে সকল উপকরণ দিয়ে কাজটি করতে ১৮-২০লাখ টাকা লাগবে।

হেলিকপ্টারটিতে থাকবে এয়ারস্পিড মিটার(গতি মাপার যন্ত্র), ভার্টিকেল স্পিড মিটার(উড্ডয়ন-আবতরণ গতি মাপক যন্ত্র), অল্টিমিটার(যা দিয়ে উচ্চতা বুঝা যাবে), কম্পাস(দিক নির্ণয় যন্ত্র), ইনক্লাইনোমিটার(ডান/বামে কাত হওয়ার মাত্রা নির্ণায়ক) এবং অটো ইঞ্জিন। গাড়ীর ইঞ্জিনকে এয়ারক্রাপ্ট ইঞ্জিনে রূপান্তর করা হবে। হেলিকপ্টারটি সিএনজি গ্যাস দিয়ে চলবে। শেষ হলে অকটেন ব্যবহার করা যেতে পারে। হেলিকপ্টারটি ৮-৯ হাজার ফুট উচ্চতায় একটানা তিনঘন্টা পর্যন্ত উড়তে পারবে। তিন ঘন্টায় প্রায় ৪০০কি.মি. অতিক্রম করতে পাবরে। এর গতি হবে ১২০-১৫০ নটিক্যাল মাইল। সব মিলিয়ে হেলিকপ্টারটির ওজন হবে ৩০০ কেজি। এর মধ্যে ইঞ্জিনের ওজন হবে ১০০ কেজি এবং গ্যাস সেলেন্ডারের ওজন হবে ৬০ কেজি।

প্রথমে আমি বিমান তৈরীর বিষয়ে অধ্যয়ন করি। পর্যায়ক্রমে হেলিকপ্টারটির ড্রয়িং এঁকে অবকাঠামো তৈরী শুরু করি। লোহার পাত দিয়ে এয়ারফ্রেম বা বিমানের বডি তৈরী করা হয়েছে। বহিরাংশে প্লেন শিট ব্যবহার করা হবে। ইঞ্জিন ও যন্ত্রপাতি স্থাপনের পর ভেলেঞ্চার(দুটি ডানায়), ও প্রপেলার(ফ্যান-যা ইঞ্জিনের শক্তি যোগাবে) লাগানোর পর মাঠে পাওয়ার টেস্ট করা হবে। সিভিল এভিয়েশনের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন করবে হেলিকপ্টারটি।

পাইলটসহ একজন যাত্রীও যাতায়াত করতে পারবে। ১০০-১২০ মিটার খালি জায়গা থাকলে সহজেই বিমানটি অবতরণ করতে পারবে যে কোনো জায়গায়। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত, চীন, শ্রীলঙ্কা, রাশিয়া, অস্ট্রেলিয়াসহ পৃথিবীর অনেক দেশেই এমন হেলিকপ্টার রয়েছে। এটিকে এয়ারক্রাপ্ট/এরোপ্লেন বা স্পোর্টস এয়ারক্রাপ্ট বলা হয়। ৫০-৬০ লক্ষ টাকায় যে কেউ কিনতে পারেন।

মাহফুজের পিতা আব্দুল মান্নান বলেন, আমার ছেলের শখের জন্য যা যা করা প্রয়োজন সব কিছুই করব। তার এ উদ্যোগ সফল ও স্বার্থক হউক এটাই মহান প্রভূর দরবারে আমার মিনতি।

মাহফুজুল আলম নর্থইষ্ট মেডিকেল কলেজের ছাত্র থাকা অবস্থায় সিলেটের শিবগঞ্জে “আল-আমিন ট্রেডার্স” নামে গাড়ির ব্যবসা শুরু করেন এবং পরবর্তীতে তিনি ব্যবসায়িক কাজে বেশ কয়েকটি দেশে সফর করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: