সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বালাগঞ্জে পেট্রোল বোমায় নিহত বকুলের পরিবার প্রধানমন্ত্রীর সহায়তার অপেক্ষায়…

daily sylhet Balagonj bokul newsশামীম আহমদ/মাছুম চৌধুরী বালাগঞ্জ::
পেট্রোল বোমায় নিহত ট্রাক চালক বকুল দেব নাথের পরিবার এখন মানবেতর জীবন-যাপন করছে। ঘটনার দুই মাসেও সরকারী কোন সহায়তা তাদের ভাগ্যে জুটেনী। প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া প্রতিশ্রতি অনুযায়ী নাশকতায় ক্ষতিগ্রস্থ অন্যান্যরা আর্থিক সহযোগিতা পেলেও বকুলের পরিবারে ভাগ্যে ঝুটেনি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত আর্থিক সহায়তা।
অপরদিকে বুকুলের মত পেট্রোল বোমায় নিহত হওয়া সিলেটের শ্রমিকলীগ নেতা শাজাহানের পরিবার প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে দেওয়া ১০ লক্ষ টাকা অনুদান পাওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন বকুলের পরিবার।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, পেশাগত কাজে বের হয়ে বিএনপি-জামায়াত নেতৃত্বাধীন ২০দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধের বলি হন বকুল। আট সদস্যের পরিবার ও চাচা মনোরঞ্জন দেবনাথের পরিবারের একমাত্র ভরসা একমাত্র উপার্জনকারী বকুলের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে তাদের পরিবারে নেমে এসেছে ঘোর অমানিষা। পরিবারের লোকজনের সাথে হাতাশা আর শোকে কাতর হয়ে গেছে বকুলের ৫বছরের শিশু সন্তান নিলয় দেবনাথ। বকুলের অপমৃত্যুকে সহজে মেনে নিতে পারছেনা তার পরিবার। রাজনীতি নামক এক বর্রর হিংস্রতা কেড়ে নিল দুই পরিবারের সুখ-শান্তি। নিহত বকুল দেবনাথ (৩৫) এর বাড়ী সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার ওসমানীনগর থানাধীন শশারকান্দি গ্রামে। ২০ জানুয়ারি সিলেট-তামাবিল সড়কের বাঘের সড়ক নামক এলাকায় বালুবাহী ট্রাকে (ঢাকা মেট্রো-ট-১৪-৬৭৩৯) অবরোধ পালনের নামে দুস্কৃতিকারীরা রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে প্রেট্রলবোমা ছুড়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় গাড়ীতে থাকা চালক বকুল দেবনাথ পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বকুলের বাড়ীতে গিয়ে জানা যায়, ট্রাক চালিয়ে সংসার চালাতেন বকুল। বড় ভাই রন্টু কাঁচামালের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। এক ছেলের জনক বকুলের স্ত্রী নিলিমা দেবনাথ এখন ৭ মাসের অন্তসত্ত্বা। একমাত্র উপার্জনকারী বকুল নিহত হওয়ার পর থেকেই পরিবারে নেমে আসছে অভাব-অনটন। বর্তমানে মানুষের সহযোগিতার উপর নির্ভরশীল হয়ে চলছে বকুলের পরিবার।
বকুলের মৃত্যুর পর থেকেই এ পর্যন্ত একদিনও ব্যবসায় যেতে পারেননি ভাই রন্টু দেবনাথ। কারণ রন্টুর স্ত্রী ক্যন্সাারে আক্রান্ত। চিকিৎসা করাতে সময় দেয়া ও তার ভাতিজা (নিহত বকুলের ছেলে) নিলয়সহ নিজ মেয়েদের পড়া-লেখার দেখাশুনা করেই মুল্যবান সময় পার করছেন বকুলের বড় ভাই রন্টু। গাড়ি মেরামতের জন্য চাচা মনোরঞ্জনের কাছ থেকে বকুল এক লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিলেন। বকুলের রেখে যাওয়া এক লক্ষ টাকার ঋণ সহ তার পরিবার বর্তমানে প্রায় তিন লক্ষ টাকা ঋণগ্রস্থ রয়েছে। আশা ছিল প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রতি অনুযায়ী নাশকতায় ক্ষতিগ্রস্থ অন্যান্য পরিবারের মত বকুলের পরিবারও আর্থিক সহায়তা পাবেন। কিন্তু সবাই পেলেও বকুল নিহত হওয়ার দুই মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও পরিবারে ভাগ্যে এখও ঝুটেনি প্রধান মন্ত্রীর দেয়া আর্থিক সহায়তা। বকুলের পরিবারের লোকজন আক্ষেপ করে বলেন, সিলেট জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে বকুলের সব ধরনের কাজপত্র প্রধান মন্ত্রীর দফতরে পাঠানো হলেও এখও তারা আর্থিক সহায়তা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন।
কিন্তু সিলেটের দক্ষিন সুরমার বদিকোনা এলাকায় পেট্রল বোমায় নিহত শ্রমিকলীগ নেতা শাহজাহানের পরিবারকে গত ১২ই ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে ১০ লক্ষ টাকার অনুদান দেয়া হয়েছে। বকুলের বড় ভাই রন্টু দেবনাথ বলেন, আমরা খুবই কষ্টের মধ্যে জীবন-যাপন করছি। শুধুমাত্র জেলা প্রশাসকের দেয়া পচিশ হাজার টাকার আর্থিক অনুদান ব্যতিত এখনও সরকারী কোন অনুদান পাইনী। আমার ভাইয়ের পরে নিহত হওয়া ব্যক্তিরা প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে নগদ আর্থিক সহযোগিতা পেয়েছেন, কিন্তু আমরা এখনো কিছু পাইনি।

প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে রন্টু বলেন, ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের অনুরোধ আমার ভাইয়ের ৫ বছরের শিশু সন্তান নিলয় ও তার অন্তসত্ত্বা স্ত্রীর কথা বিবেচনা করে তিনি আমাদেরকে সহযোগিতা করলে আমরা চির কৃতার্থ থাকবো।
এ ব্যাপারে বালাগঞ্জের ইউএনও আশরাফুর রহমান বলেন, বকুল নিহত হওয়ার পরেই জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রীর নিকট যাবতীয় কাগজ পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। শিঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি। সিলেটের জেলা প্রশাসক (ডিসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, হতাশ হওয়ার কোন কারন নেই। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন সহযোগিতা করবেন। নিশ্চয়ই বকুলের পরিবারও আর্থিক অনুদান পাবে। তাছাড়া বকুলে কাজপত্র প্রধানমন্ত্রীর নিকট পৌছে গেছে। যে কোন সময় টাকা আনার জন্য তার পরিবারকে ডাকা হতে পারে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: