সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘রক্ত ভাসা স্বাধীনতা’

31. kobitaবজলুর রশীদ চৌধূরী::

বর্গী-তুর্কী-ফার্সী গেল-গেল কত সুলতান,
মগ্-মারাঠা-বৃটিশ গেল-আইল পাকিস্তান।
রাজা-বাদশাহ বদল হয় মোদের বদল নাই,
এক শাসক ছেড়ে গেলে-আরেক শাসক পাই।

বাবা-দাদা কত গেলেন-একই নির্যাতন,
এ সব কথা কইতে আর-চায়না পূড়া মন।
কত মন্ত্রীর তাঁবেদার আর কত রাজার দাসী,
কত পায়ে বেড়ি লইলাম-কত গলায় ফাঁসী।

কত হাতের কিল্ চড়-কত পায়ের লাথি,
নিরালাতে বসে বসে কাঁদি, দিবা-রাতি।
কারায় কারায় নিখোঁজ রইলাম-হাতে-পাঁয়ে শিকল,
স্বাধীনতার আশে থাকি-মুছে চোখের জল।

ধরে ধরে নিয়ে যায়-করে কত শোষন,
ঘরে ঘরে লুটে নেয়-নারীর আসল ভূষন।
দুঃখে-শোকে জীবন যায়-নাহি পূরে আশ,
গোলামীর জিঞ্জির পরে-থাকি কারাবাস।

মুখের ভাষা রক্ষা করতে-রক্তে ভাসে দেশ,
মিছিলে মিছিলে চলে আসি একাত্তরের শেষ।
সত্তর সনে গণভোট-সাতই ডিসেম্বর,
বিজয় পেল বাংলার মানুষ-বঙ্গবন্ধুর বর।

অগ্নিঝরা সাতই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ডাকে,
জেগে উঠে বীর বাঙ্গালী-বাংলার বাঁকে বাঁকে।
“এবারের সংগ্রাম, মুক্তির সংগ্রাম,
এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম।”

পচিশ মার্চ ভয়াল রাত ঘোর অন্ধকার
নির্বিচারে মানুষ মারে পাক্-হানাদার।
ছাব্বিশ মার্চ মেজর জিয়া স্বাধীন বাংলা কয়,
বঙ্গবন্ধুর শ্লোগান ‘বাংলা করবো জয়।’

বীর বাঙ্গালী গর্জে উঠে অস্ত্র তুলে হাতে,
পূরো নয় মাস যুদ্ধ করে হানাদারের সাথে।
অবশেষে বিজয় পেলাম-ষোল ডিসেম্বর,
কত সাথী শহীদ হল-ফিরলো না আর ঘর।

ছেলে হারা, স্বামী হারা, পিতাহারা সন্তান,
পচাঁ গন্ধে বাতাস ভারী-নাইরে বাসস্থান।
রক্ত ভাসা স্বাধীনতা-অঙ্গেঁ অঙ্গেঁ দাগ,
সব হারায়ে তোমায় পেলাম-ইহাই বড় ভাগ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: