সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভয়ঙ্কর, দেখা মাত্রই হত্যার নির্দেশ!

নিউজ ডেস্ক:: ‘যদি দেখেন যে একটি উত্তরাঞ্চলীয় ‘স্নেকহেড’ মাছ আপনার জালে ধরা পড়েছে, এটিকে ছাড়বেন না। পাওয়া মাত্রই এটিকে হত্যা করুন। মনে রাখবেন, এটি ডাঙাতেও বেঁচে থাকতে পারে।’

ঠিক এরকম নির্দেশনাই দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের ন্যাচারাল রিসোর্স ডিপার্টমেন্ট বা প্রাকৃতিক সম্পদ বিভাগ।

এই মাছকে মেরে ফেলতে বলার কারণ এই রাক্ষুসে মাছ যে জলাশয়ে থাকে সব প্রাণীকে শেষ করে দেয়। শুধু তাই নয় এই রাক্ষুসে মাছ পানি ছাড়াও বাঁচতে পারে। কারণ নিজেদের শরীরে অতিরিক্ত অক্সিজেন জমা রাখতে পারে ‘স্নেকহেড ফিস’।

জানা গেছে, স্নেকহেড নিয়ে এতোটা উদ্বেগের কারণ এই মাছ বছরে দশ হাজার পর্যন্ত ডিম দেয়। ফলে এদের বংশবিস্তারও ভীষণ দ্রুত হয়। প্রায় এক দশক আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম এই মাছের অস্তিত্বের প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর থেকে এখনও পর্যন্ত চার জাতের স্নেকহেডকে আমেরিকায় শনাক্ত করা গিয়েছে।

উত্তরাঞ্চলীয় স্নেকহেড মাছ দেখতে লম্বাটে ও চিকন। এর মাথা দেখতে অদ্ভুত রকম চ্যাপ্টা। এটি নিপুণ শিকারি প্রাণী এবং এর খিদেও অফুরন্ত। প্রায় ৮০ সেন্টিমিটার লম্বা। স্থলপথেও এক জায়গা পার করে পাশের জলাশয়ে দিব্যি পৌঁছে যায়।

যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব ন্যাচারাল রিসোর্স (ডিএনপি)-এর কর্মকর্তারা দেশজুড়ে এর প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক-এর পক্ষ থেকে রাক্ষুসে এই প্রাণীটিকে নিয়ে গবেষণা শুরু হয়েছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘ফিশজিলা’।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: