সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটে আইএটিএ’র আইএসএস চালুকরণ বিষয়ক কর্মশালা

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষের অপর দেশের উপর নির্ভরশীলতা কমেছে। এর কৃতিত্ব এদেশের মানুষের, তারা দ্রুত গতিতে নিজের অবস্থার উন্নতি করেছে আর সহায়ক ভুমিকা পালন করেছে সরকার। সরকার পলিসি দিয়েছে, নীতি দিয়েছে এবং সেই নীতিকে অনুসরণ করে মানুষ দেশের উন্নয়ন করেছে। বিশেষ করে বিগত ১০ বছরে অসাধারণ দ্রুত গতিতে আমরা উন্নয়নের পথে এগিয়ে গেছি। এর প্রথম কারন শেখ হাসিনার সরকার। সেই সরকারে আমিও একজন ছিলাম। শেখ হাসিনার সরকার একটি জিনিসের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ রাখে সেটি হচ্ছে জনকল্যাণ। সরকার জনকল্যাণে নিবেদিত ছিলেন বলে, পলিসি জনগণের মন:পুত হয়েছে এবং উন্নয়ন অতি দ্রুত হয়েছে। এজন্য আমরা বিশে^ উন্নয়নের এখন রোল মডেল।

ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট এসোসিয়েশন (আইএটিএ) নিউ জেনারেশন পদ্ধতি (আইএসএস) চালুকরণ বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। আজ সোমবার নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আইএটিএ ও আটাব এর যৌথ উদ্যোগে ‘আইএটিএ নিউ জেনারেশন আইএসএস চালুকরণ’ বিষয়ক এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। আটাব সিলেট অঞ্চলের সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আটাব বাংলাদেশ-এর সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ, সহ-সভাপতি আসলাম খান, মহাসচিব আব্দুস সালাম আরেফ, আইএটিএ-এর বাংলাদেশের ব্যবস্থাপক পারভেজ ইব্রাহীম, বিসিসিবি’র পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। আইএটিএ নিউ জেনারেশন আইএসএস চালুকরণ বিষয়ক কর্মশালায় বিষয়ভিত্তিক আলোচনা উপস্থাপন করেন আইএটিএ সিংগাপুরের কনসালটেন্ট কাস্টমার সার্ভিস জাহিদুল করিম।

প্রধান অতিথি আবুল মাল মুহিত আরো বলেন, বাংলাদেশের কৃষিজমি কমে গেলেও কৃষি উৎপাদন চার গুণ বেড়েছে। এদেশের মানুষের উদ্যোগ ও উদ্ভাবনে এ অবস্থায় পৌঁছা সম্ভব হয়েছে। একই ভাবে অন্যান্য সেক্টরেও উন্নতি হবে, দেশের উন্নয়নের সাথে এয়ার ট্রাভেল ব্যবসাও বৃদ্ধি পাবে। আমার বিশ^াস উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৩০ থেকে২০৩৫-এর মধ্যে বাংলাদেশ বর্তমান উন্নত দেশগুলোর পর্যায়ে পৌঁছে যাবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আটাব বাংলাদেশ-এর সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, আটাব ও আইএটিএ নিউ জেনারেশন আইএসএস একটি নতুন ব্রিলিং সেটেলমেন্ট সিস্টেম। যে সিস্টেম আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশে চালু হচ্ছে। এই সিস্টেম চালু হওয়ার ফলে সাধারণ ট্রেভেলস এজেন্সি তারা ফাইনেন্সিয়াল ইনভলবমেন্ট ছাড়া আইএটিএ এ্যাক্রিডিয়েশন পাবেন, তার ভলিওম অনুযায়ী টিকেট বিক্রি করতে পারবেন। যাতে ব্যাংক গ্যারান্টি মটর্গেজ কোন কিছু লাগবে না। আগে কিছু সংখ্যক ট্রেভেলস এজেন্সি মনোপলি ব্যবসা করতো, এখন সব ট্রেভেলস এজেন্ট সমানভাবে ব্যবসা করতে পারবে। তিনি বলেন, অন্যের পরিচয়ে বেঁচে থাকার চেয়ে নিজের পরিচয়ে বেঁচে থাকা উত্তম, তাই পরনির্ভরশীল হয়ে ব্যবসা না করে কোয়ালিফাই মানুষ দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করতে হবে।
কর্মশালার ২য় পর্বে আটাব সিলেট অঞ্চলকে নিয়ে আটাব বাংলাদেশের ইজিএম অনুষ্ঠিত হয়। আটাব সিলেট অঞ্চলের সাধারণ সম্পাদক মো. জিয়াউর রহমান খান রেজোয়ান ও যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদ আহমদ চৌধুরীর যৌথ উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আটাব বাংলাদেশের মহাসচিব নুরুল আলম শাহীন, অর্থ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, আটাব এবং হাব-এর সাবেক মহাসচিব জিন্নুর আহমদ চৌধুরী দিপু, হাব-এর সাবেক মহাসচিব রশিদ শাহ স¤্রাট, আটাব এর সাবেক অর্থ সম্পাদক ওয়াহিদুল আলম।
উল্লেখ্য, ট্রাভেল এজেন্সির জন্য দেশে প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে আইএটিএ নিউ জেনারেশন পদ্ধতি আইএসএস। এই পদ্ধতিতে ট্রাভেল এজেন্সিগুলো ব্যাংকে কোনোধরনের জামানত ছাড়াই টিকেট বিক্রি করতে পারবে; ফলে কমবে খরচ । একই সাথে এই প্রক্রিয়ায় হজ্বযাত্রীসহ সকল যাত্রীর সেবাও হবে আন্তর্জাতিক মানের। আকাশ পথে যাত্রীদের আন্তর্জাতিক মানের সেবা নিশ্চিত করতে সকল ট্রাভেল এজেন্সিকে আইএটিএ’র অন্তর্ভুক্ত হওয়ার নির্দেশনা ছিলো সৌদি আরবের। এমতাবস্থায় সদস্যদের এই পদ্ধতির অন্তর্ভুক্ত করলো ট্রাভেল এজেন্সির শীর্ষ সংগঠন আটাব। – বিজ্ঞপ্তি




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: