সর্বশেষ আপডেট : ৪৫ মিনিট ২৫ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিক্ষোভে উত্তাল স্পেন, আহত ৫২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: স্পেনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল কাতালুনিয়াকে স্বাধীন রাষ্ট্র ঘোষণার সঙ্গে সম্পৃক্ত রাজনৈতিক নেতাদের কারাদণ্ডের প্রতিবাদে বার্সেলোনা জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। বুধবার রাতে বিক্ষোভকারীরা শহরের বিভিন্ন সড়কে গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং পুলিশকে লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা ছোড়ে। এতে পুলিশসহ অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

২০১৭ সালে কাতালুনিয়ার স্বাধীনতা লাভের আন্দোলন ও গণভোট পুরো স্পেনকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল। সোমবার দেশটির সুপ্রিম কোর্ট ঐ আন্দোলন, গণভোট এবং তার পরবর্তী স্বাধীনতা ঘোষণা সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে জড়িত নয় নেতার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ১৩ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড ঘোষণা করে। এ রায়ের প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধরা ওইদিনই রাস্তায় নেমে আসে।

বুধবার দিনভর সুপ্রিম কোর্টের ঐ রায়ের বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ দেখা গেলেও রাতে পুলিশ ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

বুধবার দিনের বেলায় বিক্ষোভকারীরা বার্সেলোনার বেশকিছু সড়ক ও রেললাইন বন্ধ করে দেয়। আঞ্চলিক সরকারপ্রধান তোরা নিজেও ‘স্বাধীনতাপন্থিদের ঘাঁটি’খ্যাত জিরোনা শহরের একটি বিক্ষোভে অংশ নেন। সূর্য ডোবার পরপরই কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী, যাদের অধিকাংশই তরুণ, বার্সেলোনার কেন্দ্রস্থলের একটি প্রধান সড়কে জড়ো হয়ে স্বাধীন কাতালানের পতাকা উড়াতে থাকে। এসময় তারা শূন্যে টয়লেট পেপারও ছুড়ে মারে।

বিক্ষোভকারীরা কর্মকর্তাদের লক্ষ্য করে মলোটোভ ককটেল, পেট্রোল বোমা ও এসিড ছুড়েছে বলে দাবি পুলিশের। কোনো কোনো স্থানে বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশকে লাঠিচার্জ ও ফোমের প্রজেক্টাইল ছুড়তে দেখা গেছে বলেও সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

স্পেনের জরুরি বিভাগ পরে বার্সেলোনা ও বিভিন্ন শহরে বুধবার পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত ৫২ জনকে প্রাথমিক চিকিত্সা দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

স্পেনের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ বলেছেন, অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোকে সঙ্গে নিয়ে সরকার এ পরিস্থিতিতে দ্রুত ও যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে। মাদ্রিদে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সোশ্যালিস্ট পার্টির এ শীর্ষ নেতা বলেন, ‘সমগ্র পরিস্থিতিই যে সরকারের বিবেচনায় আছে, কাতালান জনগণ এবং স্পেনের সমাজের সবারই তা জানা উচিত।’

নভেম্বরে নির্বাচনে ফের জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা থাকা সানচেজের ওপর কাতালুনিয়া নিয়ে শক্ত অবস্থান এবং উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নিরাপত্তা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণ কেড়ে নেওয়া বিষয়ে ডানপন্থী দলগুলোর ব্যাপক চাপ আছে। উদারপন্থী সিউদাদানোসের নেতা আলবার্ট রিভেইরা বলেন, সানচেজের প্রতি কাতালুনিয়ায় সরাসরি কেন্দ্রের শাসন চালু করার দাবি জানান।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: