সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ইলিশ রক্ষায় পুলিশ সুপার যখন পাহারাদার!

নিউজ ডেস্ক:: আকাশে চাঁদের আলো। পায়রা নদীর নির্মল স্রোত ঠেলে ছুটে চলছে ইঞ্জিনবাহী ট্রলার। প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় লাইট হাতে কখনও দাঁড়িয়ে কখনও ট্রলারের সামনে বসে নদীতে পাহারাদারের দায়িত্ব পালন করছেন পুলিশ সুপার মো. মাইনুল হাসান।

গতকাল রোববার রাত ১১টা থেকে ভোররাত ৪টা পর্যন্ত পায়রা নদীর এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ট্রলারে ঘুরেছেন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহ্ফুজ রহমান, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খন্দকার জাকির হোসেনসহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ছিলেন।

ট্রলারের মাঝি করিম মিয়া বলেন, এতো বড় অফিসার (এসপি) আজ আমার ট্রলারে উঠছে। আমিতো দীর্ঘদিন যাবৎ এই নদীতে ট্রলার চালাই তার মতো মানুষ দেখি নাই। তার মধ্যে কোনো অহংকার দেখলাম না।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মাহফুজ রহমান বলেন, টানা পাঁচ ঘণ্টার অভিযানে চল্লিশ হাজার মিটার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়। কোন মা ইলিশ পাওয়া যায়নি এবং কাউকে আটক করা হয়নি। জব্দকৃত জাল পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মো. মইনুল হাসান বলেন, ৯ অক্টোবর থেকে ৩১ অক্টোবর ২২ দিন প্রধান প্রজনন মৌসুম। এই সময় ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ। মা ইলিশ রক্ষায় আমাদের গোয়েন্দা নজরদারি থাকবে। কেউ যদি এর ব্যত্যয় ঘটায় তাহলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: