সর্বশেষ আপডেট : ১৯ মিনিট ২৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নামাজী শিক্ষার্থীকে হত্যা করে ১৬ কোটি মুসলমানদের কলিজায় আঘাত দেওয়া হয়েছে

ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের কেন্দ্র্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার সুষ্ঠ বিচার, শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রলীগের নৈরাজ্য ও ভারতের সাথে দেশবিরোধী চুক্তি বাতিলের দাবি এবং খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করেছে।
শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বাদ জুমআ বন্দরবাজারস্থ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে থেকে মিছিল শুরু হয়ে প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে স্থানীয় সিটি পয়েন্টে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মোহাম্মদ লুৎফুর রহমানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক হুসাইন আহমদের পরিচালনায় বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী। বক্তব্য রাখেন- মহানগর জমিয়তের সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ সৈয়দ সালিম আহমদ ক্বাসেমী, জেলা জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, মহানগর জমিয়তের সমাজসেবা সম্পাদক হাফিজ কবির আহমদ, সদর উপজেলা যুব জমিয়তের সভাপতি মুফতি মোহাম্মদ যাকারিয়্যা খান, ছাত্র জমিয়তের কেন্দ্রীয় নেতা হাফিজ আহমদুল হক উমামা, মহানগর যুব জমিয়তের সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ আব্দুল করিম দিলদার, অর্থ সম্পাদক আবু সুফিয়ান, মহানগর ছাত্র জমিয়তের সহ সভাপতি কে.এম ফয়েজ, জেলা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ ফয়েজ উদ্দিন, ছাত্রনেতা কে.এম. তাহমিদ হাসান, মহানগর সহ সাধারণ সম্পাদক হাফিজ জাহেদ আহমদ, প্রচার সম্পাদক আবু হানিফ সাদি, কানাইঘাট উপজেলা ছাত্র জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন, মহানগর অর্থ সম্পাদক নুরুল আমিন, ২৪নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন মঞ্জু, সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর সারওয়ার, ২১নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক মীর আয়নুল হক, আরিফুর রশিদ, ছাত্রনেতা নোমান সালেহ, উসামা বিন আব্দুল মোমিন প্রমুখ।

মিছিল পরবর্তী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী বলেন, বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ভারতের সাথে সরকারের অসম চুক্তির প্রতিবাদে ফেসবুকে লিখে প্রতিবাদ করেছিলেন। আবরার দেশপ্রেম ও দেশের স্বার্থকে সমুন্নত রাখতেই লিখেছিলেন। কিন্তু খুনিরা এটা সহ্য করতে পারেনি। খুনিদের কাছে দেশের স্বার্থ নয়, বরং ভারতের স্বার্থ রক্ষাই গুরুত্বপূর্ণ। যে কারণে তারা আবরারকে জানোয়ারের মতো পিটিয়ে হত্যা করেছে। এমন জঘন্য আচরণের নিন্দা জানানোর ভাষা নেই।
তিনি বলেন- আবরার ফাহাদের মতো একজন নামাজী ও দ্বীনদার দেশপ্রেমিক শিক্ষার্থী সমাজে বিরল। তাকে খুন করে ১৬ কোটি মুসলমানদের কলিজায় আঘাত দেওয়া হয়েছে। দেশের মানুষের বাকস্বাধীনতা ও নাগরিক অধিকার বলে কিছুই নেই। যারাই দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের পক্ষে কথা বলছেন, হামলা-মামলা ও ভয়-ভীতি দেখিয়ে তাদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে। গুম করা হচ্ছে, খুন করা হচ্ছে, মামলা দিয়ে জেলে পুরা হচ্ছে।

শাহীনুর পাশা বলেন, অবিলম্বে দেশবিরোধী চুক্তি ও মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার হত্যকারীকে ফাঁসি দিতে হবে। অন্যথায়- ছাত্রসমাজ সহ দেশের আপামর জনসাধারণ এ সমস্ত জুলুম-মির্যাতনের প্রতিবাদে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে। মহানগর ছাত্র জমিয়তের মিছিলে অংশগ্রহণকারী নেতাকর্মীরা ভারতের সাথে অবৈধ চুক্তি ও মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে নানামুখী স্লোগানে মুখরিত করেন রাজপথ। -বিজ্ঞপ্তি




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: