সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বঞ্চনা, তীব্র আন্দোলনের হুঁশিয়ারি!

নিউজ ডেস্ক:: বেতন বঞ্চনার অভিযোগে প্রাথমিক শিক্ষকদের লাগাতার ১৫ দিনের অনশন কর্মসূচির জেরে কার্যত বাধ্য হয়ে গ্রেড পে বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। ১ আগস্ট থেকেই নতুন হারে বেতনক্রম চালু করার কথা ঘোষণা করা হয়।

এই মর্মে গত শুক্রবার শিক্ষা দপ্তরের একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানায় ২৬ জুলাই যে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়, তা চলতি মাস থেকেই কার্যকর হবে৷ কিন্তু আশ্চর্য জনক ভাবে এই বিজ্ঞপ্তিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের ফিটমেন ফ্যাক্টর নিয়ে কোনো শব্দ ব্যবহার করা হয়নি৷ ফলে প্রবল ক্ষুব্ধ হয়েছেন শিক্ষকদের বড় অংশ।

শিক্ষকদের অভিযোগ রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের এই বিজ্ঞপ্তি প্রবল ভাবে বঞ্চিত করছে সিনিয়র প্রাথমিক শিক্ষকদের। দারা হিসাব দিয়ে বলছেন, এক বছর আগে যারা প্রাথমিক শিক্ষক হিসাবে চাকরিতে যোগ করেছেন তাদের বেতন বাড়বে ৫,২৮০ টাকা৷ দু’বছর মেয়াদি শিক্ষকদের বেতন বাড়বে ৪,৬৩২ টাকা৷ তিন বছর মেয়াদি শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হবে ৩,৯৬০ টাকা৷ চার বছর মেয়াদি শিক্ষকদের বেতন বারবার ৩,২৬৪ টাকা৷ পাঁচ বছর মেয়াদি শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হবার ২,৫৬৮ টাকা৷ ছ’বছর থেকে ১৭ বছর মেয়াদি শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি হবে ২,৪০০ টাকা এবং ১৮ বছরের বেশি চাকরিরত প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন বাড়বে মাত্র ১,৬৮০ টাকা৷ ফলে প্রবল ক্ষুদ্ধ সিনিয়র প্রাথমিক শিক্ষকেরা। তাঁরা বলছেন, অবিলম্বে শিক্ষকদের বর্ধিত গ্রেড-পে অনুযায়ী বেতন ও ফিটমেন ফ্যাক্টর ঘোষণা করতে হবে।

প্রাথমিক শিক্ষকদের সংগঠন উস্থি ইউনাইটেড প্রাইমারি টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের তরফে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তোলা হয়েছে এবং রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলা হয়েছে, অবিলম্বে সিনিয়র শিক্ষকদের সমস্যা সমাধান না করলে ফের তীব্র আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে প্রাথমিক শিক্ষকেরা।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: