সর্বশেষ আপডেট : ২৮ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ক্যাসিনো চালাচ্ছে আ’লীগ-যুবলীগের ক্যাডাররা : বিএনপি মহাসচিব

নিউজ ডেস্ক:: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মন্তব্য করেছেন, দেশ দুর্নীতি-মাদকসহ নানা অপরাধে ছেয়ে গেছে । তিনি বলেছেন, রাজধানীসহ সারা দেশের শহরগুলোতে ক্লাবের নামে ক্যাসিনোতে জুয়ার আড্ডা বসছে। এই ক্যাসিনোগুলো চালাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল ও তাদের অঙ্গ সংগঠন যুবলীগের ক্যাডাররা।

শুক্রবার বেলা ১১টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী যুবদল আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, অবিলম্বে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিন। সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিন। না হলে দেশের জনগণের কাছে আপনাদের অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে।

যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরবের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকুর পরিচালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাসান, যুবদল উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টন, দক্ষিণের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহীন, যুবদল নেতা আলী আকবর চুন্নু প্রমুখ।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আওয়ামী লীগ সব অযোগ্যদের উপাচার্য নিয়োগ দিয়েছে। আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়-জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য যাদের আমরা অনেক সম্মান করি, তারাও ঘুষ-কমিশন বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগে আন্দোলন চলছে। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক সবাই আন্দোলন করছে। আরও কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন চলছে। অযোগ্যদের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

দেশের বিচার বিভাগ সরকার নিয়ন্ত্রণ করছে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া চরম অসুস্থ। আমরা নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে তার জামিন চাচ্ছি, তাকে জামিন দেয়া হচ্ছে না। অথচ বর্তমান সরকারের আমলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের নামে থাকা সাড়ে সাত হাজার মামলা তুলে নেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মামলাও তুলে নেয়া হয়েছে।

রোহিঙ্গা ইস্যু সরকারের ভুল নীতির সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, আজ ১০ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে বসে আছে। তাদের দেশে ফেরানোর কোনো কার্যকর উদ্যোগ নেই। প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানিটিখ্যাত। কিন্তু আমাদের মাদার অব হিউম্যানিটি একজন রোহিঙ্গাকেও দেশে ফেরাতে পারলেন না।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: