সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘ সুনামগঞ্জ আ’লীগের সব ইউনিট কমিটি বিলুপ্তি নিয়ে অপপ্রচার’

ডেইলি সিলেট ডেস্ক:: সুনামগঞ্জ জেলার উপজেলা, পৌরসভা ও থানা মিলে ৬টি ইউনিট কমিটি এক সপ্তাহের মধ্যে ভেঙে দেওয়ার খবরে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে নেতাকর্মীর মধ্যে। কমিটিগুলো বিলুপ্তি বা ভেঙে দেওয়ার প্রচারে সত্যতা না থাকায় অভিযোগ উঠেছে, একটি মহল অপপ্রচার করে দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। এমনকি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মতিউর রহমান পাল্টা প্রশ্ন তুলেছেন- সদর ও পৌরসভায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি রয়েছে, সেগুলো ভাঙার প্রশ্ন আসবে কেন? অবশ্য তিনি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, জামালগঞ্জ উপজেলা কমিটির বেশিরভাগ সদস্য বর্তমান কমিটির বিরুদ্ধে অনাস্থা আনায় ওই কমিটি ভাঙার ব্যাপারে গঠনতান্ত্রিক পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ মধ্যনগর থানা কমিটি ভেঙে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হবে। দুটি ইউনিট কমিটি ছাড়া ছাতক বাকি ৪টি কমিটি থাকবে উল্লেখ করে বলেন, ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলায় আমাদের আহ্বায়ক কমিটি রয়েছে।

শুক্রবার সুনামগঞ্জ শহরের শহীদ জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে জামালগঞ্জ ও মধ্যনগর কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে নেতৃবৃন্দ এক হয়ে সিদ্ধান্ত নিলেও বৈঠক শেষে রাতে জেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক অ্যাডভোকেট নূরে আলম সিদ্দীক উজ্জ্বল গনমাধ্যমকে জানান, সুনামগঞ্জ সদর, পৌরসভা, ছাতক, দোয়ারাবাজার, জামালগঞ্জ ও মধ্যনগর কমিটি ভেঙে দেওয়া হবে। এ নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা দেয়। কিন্ত পরবর্তীতে এর সত্যতা মিলেনি।

অভিযোগ উঠেছে, আওয়ামী লীগের একটি অংশের কারণে সবক’টি কমিটি ভেঙে দেওয়ার ঘোষানা দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হয়েছে। ওই পক্ষ চাচ্ছে কমিটি থাকার পরও নতুন করে কমিটি দিয়ে নিজেদের পাল্লা ভারি করতে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা আওয়ামী লীগের এক নেতা অভিযোগ করেন, দলের ঐক্য বিনষ্ট করতে বিভ্রান্তি ছড়ানো হয়েছে। সাধারণ সম্পাদকের আস্থাভাজন উজ্জ্বল কিছু নেতার প্রেসক্রিপশনে ভূয়া তথ্য সরবরাহ করেন। আর সেই বিভ্রান্তির কারণে নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এর আগে ইউনিটের নেতৃবৃন্দ সব কমিটি ভেঙ্গে দেওয়ার খবরের সত্যতা জানতে দৌড়ঝাপও শুরু করেন। এমন পরিস্থিতিতে আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান বিষয়টি খোলাসা করেন। ফলে নেতাকর্মীদের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: