সর্বশেষ আপডেট : ৩৭ মিনিট ২৮ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কমলগঞ্জে ক্রয়কৃত জমি দখলে নিতে প্রতিপক্ষের মামলা হামলার অভিযোগ

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:: ক্রয়কৃত ভূমি দখলে নিতে প্রতিপক্ষের হামলা মামলায় চরম নিরাপত্তাহীনতার অভিযোগ তোলে জানমালের নিরাপত্তা প্রদানের দাবি জানিয়েছেন সংখ্যালঘু মণিপুরী পরিবার সদস্য। গতকাল শনিবার দুপুরে কমলগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় আদমপুর বাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামের শান্ত কুমার সিংহ। তবে প্রতিপক্ষের বাহার উল্ল্যা নিজে তিন শতক জমি পান বলে দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে বলা হয়, আমি নিরীহ সংখ্যালঘু পরিবারের লোক হওয়ার কারণে বাহার উল্ল্যা সহ সংশ্লিষ্টরা আমার জমি জোরপূর্বক দখলের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। প্রায় তিন বছর পূর্বে একই এলাকার ইমানী ও আইন উদ্দিন এর নিকট থেকে দূঘর মৌজাস্থিত আট শতক ভূমি ক্রয় করে দখলদার বিদ্যমান ও চাষাবাদ করে আসলেও পাশের প্লটের মালিক এলাকার চিহ্নিত বাহার উল্যাসহ কতিপয় ব্যক্তিরা খরিদকৃত এই জমি দখলে নিতে চেষ্টা চালায়। এর জের ধরে গত বছরের ২১ জুন বাহার উল্যা আমার বাড়িতে এসে এক লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তার লোকজনকে দিয়ে আমার খরিদকৃত জমি দখল করে নেয়ার হুমকি দেয়। বিষয়টি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে অবহিত করলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বাহার উল্যা ও তার লোকজন গত ১৯ জুলাই দুপুরে আমার জমিতে কোপানো শূরু করে। ঘটনাস্থলে এসে প্রতিবাদ করলে দেশীয় অস্ত্র দ্বারা আক্রমণের চেষ্টা চালায়। এঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ তদন্তে এসে জমিতে উভয়পক্ষের যাতায়াতের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। পুলিশী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গত ২৩ জুলাই বাহার উল্যা অপর সহযোগী মাসুকের নেতৃত্বে ট্রাক্টর নিয়ে জমিতে প্রবেশ করে হালচাষ শুরু করে, বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে লাঠি নিয়ে আক্রমণ করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে হালচাষ বন্ধ করে। আমি জানমাল ও সম্পত্তির হেফাজত চেয়ে গত ২৪ জুলাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি আবেদন দাখিল করি।

গত ৪ আগষ্ট সালিশী বৈঠকে উপস্থিত সালিশীগণ প্রতিপক্ষকে দোষী সাব্যস্থ করলে বাহার উল্ল্যারা জায়গাটি বাজারমূল্যে খরিদ করে নেওয়ার মত প্রকাশ করে। পরবর্তীতে সে প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করেই বাহার উল্যা নিজে বাদী হয়ে মৌলভীবাজারস্থ আদালতে গত ৩১ জুলাই মামলা দায়ের করে। সালিশী বৈঠকে উপস্থিত সালিশদার, মামলার তদন্তকারী দারোগাসহ আমাকে আসামী করে গত ৬ আগষ্ট মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতে একটি চাাঁদাবাজীর হয়রানীমূলক আরও একটি মামলা দায়ের করে। এ বিষয়ে জানমালের নিরাপত্তা বিধানসহ এলাকায় শান্তিতে বসবাসের নিশ্চয়তা বিধানের জন্য তিনি প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানান।
অভিযোগ বিষয়ে বাহার উল্ল্যা বলেন, এখানে আমার তিনশতক জমি রয়েছে। আমার জমির দাবি করেছি। শান্ত কুমার সিংহ ও তার পরিবার বর্গকে কোন হুমকি প্রদান করা হচ্ছে না। আমার বাবা রোয়াব উল্ল্যা দুটি মামলা করেছেন।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: