সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ওষুধের পাতায় লাল দাগ বা বিভিন্ন সংকেত কেন থাকে জানেন কি?

নিউজ ডেস্ক:: মুঠো মুঠো ওষুধ কিনে খাওয়ার অভ্যাস তো আমাদের সকলেরই প্রায় থাকে। তা যে ওষুধগুলো কিনে পটপট করে খেয়ে ফেলছেন, জানেন আদৌ সেগুলো আপনার খাওয়া ঠিক কি না? ডাক্তারের কাছে যাওয়ার হ্যাপা তো এড়াচ্ছেন, কিন্তু তাতে আপনার শরীর ঠিক থাকবে তো?

অনেক সময়ে দেখবেন ওষুধের স্ট্রিপে একটা লাল দাগ থাকে, ভেবে দেখেছেন কেন থাকে? ভাবার চেষ্টা না করেই তো কিনে খেয়ে ফেলেন।

যে সব ওষুধের স্ট্রিপে লাল দাগ থাকে, সেগুলো ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন ছাড়া একেবারেই কেনা বা খাওয়া যাবে না, অ্যান্টিবায়োটিক যাতে আপনি ডাক্তারের সাথে কথা না বলেই খেয়ে না ফেলেন, সে কারণেই ওষুধের কোম্পানিগুলো এই ব্যবস্থা করে রাখে। অথচ, আপনার সেদিকে খেয়ালও থাকে না।

এবার থেকে এই লাল দাগ দেওয়া কোনও ওষুধ ডাক্তারের সাথে পরামর্শ না করে একেবারেই খাবেন না।

অনেক ওষুধের পাতায় বা স্ট্রিপে, প্যাকেটে আরএক্স, এনআরএক্স, এক্সআরএক্সও লেখা থাকে। এগুলোর মানেও নিশ্চয় আপনি দেখার বা বোঝার চেষ্টা করেন না। অত সময়ই নেই আমাদের হাতে, তাই না? জেনে নিন কী এই আরএক্স, এনআরএক্স, এক্সআরএক্স।

আরএক্স লেখা ওষুধও ডাক্তার না বললে একেবারেই খাবেন না, এতে আপনার মর্জির মাশুল আপনার শরীরকে গুনতে হতে পারে তো।

এনআরএক্স লেখা ওষুধের পাতাগুলোর ওষুধ আপনাকে তখনই তেমন কোনও ডাক্তার প্রেসক্রাইব করতে পারেন, যখন তাঁর কাছে সেই ওষুধ দেওযার লাইসেন্স রয়েছে। এবার থেকে কোনও ডাক্তার যদি আপনাকে এনআরএক্স লেখা কোনও ওষুধের পাতা সাজেস্ট করেন, আপনি চাইলেই তাঁর সেই ওষুধ দেওয়ার বা প্রেসক্রাইব করার লাইসেন্স আছে কি না একবার দেখে নিতে পারেন।

কোনও কোনও ডাক্তারের কাছে দেখবেন, আমরা এমন কিছু ওষুধ পাই যা কোনও দোকানে পাওয়া যাবে না। সেটা সেই ডাক্তার বলেই আপনাকে দেন। কেন কখনও জানতে ইচ্ছে করেছে? এমনকি এই ওষুধগুলো প্রেসক্রিপশনে লেখা থাকলেও কোনও ওষুধের দোকানে পাবেন না।

একটু সেই ওষুধের বাক্স বা পাতাগুলোয় দেখবেন, কোথাও না কোথাও তাতে এক্সআরএক্স লেখাটা খুঁজে পাবেনই। হ্যাঁ , এই এক্সআরএক্স লেখা ওষুধ শুধুমাত্র ডাক্তাররাই সরাসরি তাঁর রোগীকে দিতে পারেন।

অতএব এবার থেকে ওষুধ কিনলেই বা ডাক্তারের কাছে কোনও ওষুধ পেলেই তার গায়ে লেখা এবং লাল দাগ সম্পর্কে সচেতন হবেন। তাতে অনেক বেশি দিন সুস্থ হয়ে বাঁচতে পারবেন।

-দ্য ওয়াল।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: