সর্বশেষ আপডেট : ৪৪ মিনিট ১১ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘মওদুদ একটা শয়তান’

নিউজ ডেস্ক:: ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদকে শয়তান বলে অভিহিত করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেছেন, ‘আইনমন্ত্রী থাকার পরও ব্যারিস্টার মওদুদ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি। মওদুদ একটা শয়তান। ব্যারিস্টার মওদুদরা আদর্শিক শয়তান। এসব শয়তানদের কারণে দেশ বারবার পিছিয়ে গেছে।’

আজ রোববার কৃষি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে ঈদ-পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়কালে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদকে নিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আইনমন্ত্রী থাকার পরও ব্যারিস্টার মওদুদ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি। মওদুদ একটা শয়তান। ব্যারিস্টার মওদুদরা আদর্শিক শয়তান। এসব শয়তানের কারণে দেশ বারবার পিছিয়ে গেছে।’

কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর ১৯৭৫ এ যে লক্ষ্য নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল, তা লক্ষ্য পূরণের জন্য সেই সরকার কাজ করেছে। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীরা মানবতার কথা বলে তারা বিভিন্ন দেশে পালিয়ে রয়েছে। বলেন, বঙ্গবন্ধুকে একটি বিরাট ষড়যন্ত্র বিশাল লক্ষ্য নিয়ে পরিচালিত হয়েছিল, সেই ধারাবাহিকতায় তাকে হত্যা করা হয়। এটি ছিল একটি প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকাশ। বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার যে চেতনা, সেটি ধ্বংস করে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্কে সৃষ্টি করা এই হত্যাকাণ্ডের উদ্দেশ্য ছিল।’

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘সঠিক ইতিহাস জানা দরকার। সঠিক ইতিহাস না জানলে জাতি বিভ্রান্ত হয়। ১৯৯৬ পর্যন্ত একটানা সামরিক শাসকদের দ্বারা দেশ পরিচালিত হয়েছে। বিএনপি যতবার ক্ষমতায় এসেছে, ততবারই তারা ৭৫ এর খুনি ও ৭১ এর পরাজিত শক্তির স্বার্থ বাস্তবায়ন করেছে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত।’



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: