সর্বশেষ আপডেট : ২১ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পশু কোরবানি হয়েছে বাংলাদেশে

নিউজ ডেস্ক:: বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পশু কোরবানি হয়েছে বাংলাদেশে। প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের হিসাবে, এবারের বাংলাদেশে কোরবানি হয়েছে ১ কোটি ১০ লাখ পশু। এরমধ্যে গরু কোরবানি হয়েছে ৮২ লাখ। এটি গতবারের চেয়ে ৬ লাখ বেশি।

গত বছর কোরবানি হয়েছিলো ১ কোটি ৪ লাখ। অন্যদিকে পাকিস্তানে এবারে কোরবানি কমেছে। গত বছর বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে প্রায় সমান সংখ্যক কোরবানি হয়েছিলো। এবারে পাকিস্তানে কোরবানি হয়েছে ৮৮ লাখ পশু।

পাকিস্তানের সামা নিউজকে পাকিস্তান ট্যানার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি গুলজার ফিরোজ জানান, এবারে পাকিস্তানে কোরবানি হয়েছে গতবারের চেয়ে ১০ শতাংশ কম। এবারে ছাগল কোরবানি হয়েছে ৩৫ লাখ। গত বছর ছিলো ৪০ লাখ। গরু কোরবানি হয়েছে ৫৮ লাখ, ভেড়া ৮০ হাজার, উট ১ লাখ।

পাকিস্তানে কোরবানি কম হওয়ার কারণ হিসাবে তিনি বলেন, পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই খারাপ, ভারতের গরু এবারে পাকিস্তানে আসেনি। ফলে পশুর দাম ছিলো বেশি।

বিশ্বে তৃতীয় কোরবানি হয়েছে সৌদি আরবে। জেদ্দা চেম্বার অব কমার্সের হিসাবে এবারে সৌদিতে কোরবানি হয়েছে ২৫ মিলিয়ন পশু। এর মধ্যে বিভিন্ন দেশের হজ যাত্রীরা কোরবানি দিয়েছে ১৮ লাখ পশু। জেদ্দা চেম্বার অব কমার্স জানিয়েছে এবারে সৌদিতেও কোরবানি কমেছে। কারণ হিসাবে তারা বলেছে সিরিয়া ও মিশরের ক্যাটলফার্মগুলোতে ভেড়া ও ছাগলের উৎপাদন কম হওয়ায় পশুর মূল্য বেশি ছিলো। তবে এবারের আরব আমিরাতে ৮ হাজার কোরবানি হয়েছে। এটি গতবছরের চেয়ে বেশি।

সৌদি গণমাধ্যমের তথ্য মতে, এই ৮ হাজারের ৭ হাজারই ভেড়া ও ছাগল। তুরস্কেও কোরবানি হয়েছে প্রায় ৫ লাখ পশু। মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার কোরবানির হিসাব পাওয়া যায়নি। তবে খালিজ টাইমে বলা হয়েছে শুধু কোয়ালালামপুরে কোরবানি হয়েছে ২৩টি গরু।



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: