সর্বশেষ আপডেট : ৪২ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জানা গেল ভিপি নুরকে হামলার কারণ

নিউজ ডেস্ক:: পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে আসার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় নুর ও তার সঙ্গী ইব্রাহীম প্যাদাসহ ৫-৭ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে পুয়াখালীর গলাচিপার সীমান্ত এলাকা রনগোপালদী ব্রিজের ওপর এই ঘটনা ঘটে। পরে গলাচিপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভিপি নুর বাড়ি ফিরে গেছেন।

এদিকে জানা গেছে, ১৫ আগস্ট নিয়ে কটূক্তি করায় স্থানীয় যুবলীগের মারধরের শিকার হয়েছেন নুর। চর কাজলে উপজেলায় নিজের গ্রামের বাড়িতে ঈদুল আজহা পালন করেন নুর। আজ ঈদের তৃতীয় দিন মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে দশমিনায় উপজেলায় খালার বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে দশমিনা ও গলাচিপা উপজেলার সংযোগ সেতু উলানিয়া বন্দরে চা পান করতে থামেন তিনি।

চায়ের দোকানে বসে তিনি ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস নিয়ে কটূক্তি করেন। স্থানীয় যুবলীগের অভিযোগ, চায়ের দোকানে বসে নুর বলেন, ‘১৫ আগস্টে কেন এত গরু জবাই দিতে হবে? বাঙালিদের কেন খাওয়াতে হবে?’ এসব ইন্ডিয়া থেকে করানো হচ্ছে।

এসব নেতিবাচক কথাবার্তায় ক্ষুব্ধ হয়ে উলানিয়া বন্দর স্থানীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জহির হাওলাদার নেতৃত্বে কর্মীরা ভিপি নুরের ওপর হামলা করে। হামলায় নুর ও তার কয়েক সঙ্গীকে মারধর করা হয়।

এ বিষয়ে গলাচিপা উপজেলার চেয়ারম্যান শাহিনশাহ জানান, নুরুকে স্থানীয়রা চিনতে পারে নাই। তিনি ১৫ আগস্ট নিয়ে কটূক্তি করায় যুবলীগের নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে তার ওপর হামলা করে। এতে তিনি আহত হয়েছেন।

এদিকে ঘটনার পর গলাচিপা থানা পুলিশ নুরকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি চলে যান।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: