সর্বশেষ আপডেট : ৪৩ মিনিট ৬০ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাংলাদেশে রাইডারদের জন্য গুগল ম্যাপে নতুন ফিচার যুক্ত করলো গুগল

নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশে রাইডারদের জন্য গুগল ম্যাপে বেশ কয়েকটি নতুন ফিচার চালু করেছে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল। আজ রাজধানী গুলশানের লেকশোর হোটেলে এক অনুষ্ঠানে নতুন এ ফিচারগুলো উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গুগল ম্যাপস-এর ডিরেক্টর প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্ট ক্রিশ ভিতালদেভারা; গুগল ম্যাপস-এর সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার (দক্ষিণ এশিয়া) অনল ঘোষ; গুগল-এর বিজনেস এন্ড অপারেশন্স লিড বিকি রাসেল এবং গুগল-এর বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এন্ড অপারেশন্স জেসিকা বায়ার্ন।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি বলেন, “ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আমরা ইতোমধ্যেই উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিকাশ ও এই খাতে ক্রমবর্ধমান প্রবৃদ্ধি অর্জনের ফলে বিশ্বজুড়েই তথ্যপ্রযুক্তি খাতে পথিকৃৎ হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে বাংলাদেশকে।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিকাশে উপযুক্ত ইকোসিস্টেম তৈরিতে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে বাংলাদেশ সরকার। এর ফলস্বরুপ দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দেশীয় ও বিদেশী বিনিয়োগ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের লক্ষ লক্ষ নাগরিক বর্তমানে গন্তব্য খুঁজে বের করতে, পথনির্দেশনা পেতে এবং যানজট এড়াতে বেছে নিচ্ছেন গুগল ম্যাপস এর মতো পরিষেবা, যা ইতোমধ্যেই আমাদের দৈনন্দিন জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে।

বাংলাদেশের মানচিত্রায়নে গুগলের নিরলস প্রচেষ্টাকে আমি সাধুবাদ জানাই। আমাদের মাতৃভাষা বাংলায় ভয়েস নেভিগেশন সেবা, নিরাপত্তা ব্যবস্থা সংযুক্ত করা এবং দেশের রাইড শেয়ারিং খাতের উন্নয়নে গুগল ম্যাপে বিশেষ মোটরসাইকেল মোড সংযুক্ত করার ফলে প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার সুফল পৌঁছে যাচ্ছে আর্থসামাজিক অবস্থান ভেদে সকলের হাতে হাতে।

বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নতুন মাত্রা যোগ করতে সক্ষম বিভিন্ন পরিষেবা উদ্ভাবনে সরকার ও গুগল একত্রে কাজ করবে বলে আমি আশাবাদী।

এখন থেকে, রাইডাররা শুধুমাত্র যাত্রার আনুমানিক সময়সীমাই জানতে পারবেন না, বাইকের জন্য সবচেয়ে ভালো পথ নির্দেশিকাও পাবেন। এছাড়া, গুগল ম্যাপস ব্যবহারকারীরা বাংলায় ভয়েস নেভিগেশন বা পথনির্দেশিকা শুনতে পারবেন। যেহেতু রাইড শেয়ারিং এখন বেশ জনপ্রিয়, আর তাই প্রত্যেক যাত্রী নিজেদের গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে কোন পথটি সবচেয়ে ভালো তা ডাবল-চেকিংয়ের মাধ্যমে নিশ্চিত হতে পারবেন এবং তা পরিবার ও বন্ধু-বান্ধবদের সাথে শেয়ার করতে পারবেন।

নির্বাচিত রুট বা পথ থেকে ০.৫ কিলোমিটার পরিমান বাইরে গেলেই যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের জন্য রয়েছে অডিয়েবল অ্যালার্ট।

এ বিষয়ে গুগল ম্যাপস-এর ডিরেক্টর প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্ট ক্রিশ ভিতালদেভারা বলেন, “চাহিদা অনুযায়ী আমরা স্থানীয় জনসাধারণকে সর্বোৎকৃষ্ট অভিজ্ঞতা প্রদানে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আর তাই বাংলা ভয়েস নেভিগেশন এবং উপযুক্ত পথ দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছানো ও তা শেয়ার করার ফিচার কমিউটার সেফটির মতো সংশ্লিষ্ট সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে। এতে করে বাংলাদেশের সর্বত্র যাত্রীদের পথ যাত্রা হবে আরও সহজতর।”

মোটরসাইকেল রাইডারদের জন্য গুগল ম্যাপস নিয়ে এসছে নতুন নেভিগেশন মোড। মোটরসাইকেল রাইডারদেরও রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট চাহিদা। গাড়ি যেসব পথ দিয়ে চলাচল করতে পারে না, গুগল ম্যাপসের নতুন ফিচারের মাধ্যমে সেসব সরু পথ দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন মোটরসাইকেল রাইডাররা। এছাড়া এমন অনেক রাস্তা বা হাইওয়ে আছে যেগুলোতে দুই চাকা বিশিষ্ট যানবাহন চলাচল নিষেধ, কারণ সেসব রাস্তায় গাড়ি ও মোটরসাইকেলের গতির পার্থক্য অনেক। এসব রাস্তায় না যাওয়ার জন্যও নির্দেশনা দেবে গুগল ম্যাপস।

আগে পায়ে হাঁটা ও গাড়ি ড্রাইভিংয়ের মিলিত সম্ভাব্য সময় ধরে নিয়ে মোটরসাইকেল রাইডাররা গন্তব্যে পৌঁছানোর আনুমানিক সময় হিসেব করতেন। কিন্তু এখন গুগল ম্যাপের নতুন মেশিন লার্নিং ফিচারের মাধ্যমে মোটরসাইকেল রাইডারদের যাত্রার সময় হবে আরও নির্ভুল, যার কার্যকরী প্রভাব পড়বে মোটরসাইকেলের গতি ও রুটের উপর।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা গুগল ম্যাপসের নতুন সংস্করণটি ব্যবহারের মধ্য দিয়ে নতুন সব ফিচার উপভোগ করতে পারবেন।



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: