সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বড়লেখায় জাহেদ সুপার মার্কেটে দুঃসাহসিক চুরি

বড়লেখা প্রতিনিধি:: বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর চৌমুহনীর জাহেদ সুপার মার্কেটে সোমবার রাতে দুঃসাহসিক চুরি সংঘঠিত হয়েছে। চোরেরা টাকাসহ দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিকেলে থানায় চুরির মামলা করেন ব্যবসায়ী জাহেদ আহমদ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর চৌমুহনীর জফরপুর-গঙ্গারজল রোডের জাহেদ সুপার মার্কেটের ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরের স্বত্বাধিকারী মো. ইছকন্দর আলী, তার ছেলে জাহেদ আহমদ ও কর্মচারিরা প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার রাত ১১ টায় ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোর বন্ধ করে মার্কেট সংলগ্ন বাসায় চলে যান। ভোর সাড়ে পাঁচ টার দিকে ঘুম থেকে উঠে বাসার দরজা খুলতে গিয়ে দেখেন বাহিরে থেকে প্রতিটি দরজায় গাছের টুকরো দিয়ে জ্যাম দেয়া। প্রতিবেশিদের সহায়তায় গাছের গুড়ি সরানোর পর ঘর থেকে বেরিয়ে দেখেন ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরের পিছনের সাটার এবং ষ্টীলের দরজার তালাগুলো ভাঙ্গা। ভিতরে প্রবেশ করে দেখেন জিনিজপত্র এলোমেলো ও ক্যাশ বাক্স ভাঙ্গা।

ইছকন্দর আলী ও তার ছেলে জাহেদ আহমদ জানান, তালা ভেঙ্গে চোরেরা দোকানের ভিতরে প্রবেশ করেই সিসি ক্যামেরার মনিটরের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। তালা ভাঙ্গা ও ভিতরে প্রবেশ করা পর্যন্ত মুখ বাঁধা চোরদের ফোটেজ সিসি ক্যামেরায় পাওয়া গেছে। চোরেরা ক্যাশবাক্সে রক্ষিত ৩৫ হাজার টাকা, ফ্যাক্সিলোড ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের তিনটি মোবাইল ফোন, মোবাইল রিচার্জ কার্ডসহ দেড় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। চুরির ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন।

বড়লেখা থানার ওসি (তদন্ত) মো. জসীম জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সিসি ক্যামেরার ফোটেজের সুত্র ধরে পুলিশ চোরচক্রকে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: