সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

উইমেন্স মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণির ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম সম্পন্ন

শিক্ষাঙ্গন ডেস্ক ::
ইএসডি ফাউন্ডেশন পরিচালিত উইমেন্স মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণির ওরিন্টেশন প্রোগ্রাম সিলেটস্থ একটি কমিউনিউটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর সিলেট অঞ্চলের পরিচালক জনাব প্রফেসর হারুন-উর-রশীদ। তাঁর বক্তব্যে তিনি বলেন এ+ এর পেছনে না ছুটে আগে মানুষ হতে হবে। উইমেন্স মডেল কলেজের সুশৃঙ্খল গঠনতন্ত্র নারী শিক্ষার অগ্রযাত্রাকে তরান্বিত করছে। নারী শিক্ষার সুদুরপ্রসারী বাস্তবায়নে অভিভাবক ও শিক্ষকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। দেশের সার্বিক উন্নয়নে নারী শিক্ষার মৌলিক উদ্দেশ্য হচ্ছে ভালো মানুষ হওয়া ও ফলপ্রসু রেজাল্ট করা। এছাড়াও তিনি নবাগত শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন এবং কলেজ কর্তৃপক্ষকে অভিনন্দন জানান।

ইংরিজ বিভাগের প্রভাষক লুবাবা রাহনুম এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে নবীণ শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয় এবং অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সালেহ আহমদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব প্রণব কান্তি দেব। তাঁর বক্তব্যে বলেন উইমেন্স মডেল কলেজের কাঠামোগত নিয়মনীতি অনুসরণ করতে পারলে কাঙ্খিত সাফল্য অর্জন করা সম্ভব। এছাড়া কলেজের শিক্ষকদের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরোও বক্তব্য রাখেন ই.এস.ডি ফাউন্ডেশনের ট্রাস্টি জনাব মাহবুবুল আলম মিলন। তিনি বলেন উইমেন্স মডেল কলেজ শুধুমাত্র ভালো পড়াশুনা করায় না, সাথে একজন ছাত্রীকে ভালো মানুষ হতে শেখায়। যদি লক্ষ্য অটুট থাকে তবে অবশ্যই বিজয় নিশ্চিত। এছাড়াও তিনি নবাগত শিক্ষার্থীদের ও অভিভাবকবৃন্দদের অভিবাদন জ্ঞাপন করেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন উইমেন্স মডেল কলেজের কো-অর্ডিনেটর জনাব হাফিজ আহমদ দাউদ।
দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুভূতিমূলক বক্তব্য রাখেন দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী রহিমা আক্তার রুবি।
নবীণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুভূতিমূলক বক্তব্য রাখেন একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মাসুমা আক্তার, সামিয়া ও সুমাইয়া।
অভিভাবকদের বক্তব্য মো: মারফত আলি বলেন, উনার প্রত্যাশা অধ্যায়নের মাধ্যমে নবাগত শিক্ষার্থীরা তাদের কাঙ্খিত স্বপ্ন পূরণ করতে পারবে।

সভাপতির বক্তব্য উইমেন্স মডেল কলেজের অধ্যক্ষ জনাব আব্দুল ওয়াদুদ তাপাদার বলেন উইমেন্স মডেল কলেজের শিক্ষকগণ গুণগত শিক্ষা নিশ্চায়নের বদ্ধপরিকর। ভালো রেজাল্টের জন্য অভিভাবকদের ভূমিকা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত। আমাদের পাঠদান পদ্ধতি সু-পরিকল্পনা মাফিক এবং সুষম সিলেবাস বণ্টন ও পরীক্ষা পদ্ধতিই আমাদের ব্যতিক্রমী প্রচেষ্টার উদাহরণ।
আমরা হোম টিউশনীতে বিশ্বাসী না তাই আমাদের কোন ছাত্রীকে প্রাইভেট পগড়তে হয় না। উইমেন্স মডেল কলেজ যাবতীয় জাতীয় দিবস ও বিশেষ দিবস সমূহ যথাযথ সম্মানপ্রদর্শনপূর্বক উদযাপন করে থাকে।
এছাড়াও কলেজের অধ্যক্ষ মহোদয় কলেজের নিয়মতন্ত্র ও কার্যবিধি নিয়ে নির্দেশনা দেন। তিনি আরোও বলেন আমরা বিশ্বাস করি শিক্ষক, ছাত্রী ও অভিভাবক এই তিনের সমন্বয়ে অবশ্যই আমরা আমাদের কাঙ্খিত সাফল্য অর্জন করতে পারব।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হয় শিক্ষক পরিচিতি পর্ব এবং শিক্ষার্থীদের মাসিক পাঠপরিকল্পনা ও ক্লাস রুটিন প্রদান করা হয়।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: