সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪০ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পদত্যাগ করেছেন থেরেসা মে

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির প্রধানের পদ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করেছেন থেরেসা মে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে দল থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। ফলে নিয়মানুযায়ী প্রধানমন্ত্রী পদও আর থাকছে না তার।

তবে এখনই প্রধানমন্ত্রীত্ব ছাড়ছেন না মে। কনজারভেটিভ পার্টি তাদের নতুন নেতা নির্বাচন না করা পর্যন্ত তিনি এই দায়িত্ব পালন করে যাবেন। কয়েক সপ্তাহ আগেই পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছিলেন মে। সে সময় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বেক্সিট ইস্যু সফল করতে ব্যর্থ হওয়ার অনুতাপ প্রকাশ করেছিলেন তিনি।

তিনবার বেক্সিট ভোটে হেরে যাওয়ায় ব্যাপক চাপের মুখে ছিলেন মে। এদিকে, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন জানিয়েছেন, থেরেসা মে সরে যাওয়ার পর তিনি নির্বাচনে লড়বেন। অনেকদিন ধরেই ডাউনিং স্ট্রিট থেকে প্রধানমন্ত্রী মের পদত্যাগ দাবি করে আসছেন টোরি এমপিরা।

মে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার পর কনজারভেটিভ দলের ১১ এমপি দলীয় প্রধান হওয়ার লড়াইয়ে নেমেছেন। যিনি জিতবেন তিনিই হবেন দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।

জুলাইয়ের শেষের দিকে নতুন দলীয় প্রধানের নাম ঘোষণা হতে পারে। এই সময়ের মধ্যে মে দলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

এর আগে পদত্যাগের ঘোষণায় মে বলেছিলেন, বেক্সিট সফল করতে আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি। কিন্তু পর পর তিনবার ব্যর্থ হয়েছি।

এছাড়া গত মে মাসে টোরি এমপিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মের এক বৈঠকের পরই পদত্যাগের বিষয়ে সম্মতি জানান তিনি। সে সময়ই পরবর্তী নির্বাচনের সময়সীমাও জানিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মে।

গত বছরের শেষের দিকে একটি আস্থা ভোটে থেরেসা মের দল কনজারভেটিভ পার্টির এমপিদের ভোটে কোন রকমে উতরে গিয়েছিলেন তিনি। সামান্য ভোটের ব্যবধানে তিনি জয়ী হয়েছিলেন।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: