সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জনকল্যানে তাহিরপুরে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে সাদা মনের মানুষ – বাবুল

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিশাল ব্যবধানে বিজয়ী হয়ে ঘরে বসে নেই জন নন্দিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। বসে নেই যারা তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছন তাদের কল্যানের জন্য কাজ করছেন। কি ভাবে জনগনের উপকারে কাজ করা যায়,তাদের উন্নয়নে স্বার্থে সব কাজ করতে পাশে থাকা জন্য বাকী জীবন সেই চেষ্টাই করছেন। তার জন্য প্রতিদিনেই অফিস সময় পার করেই বেড়িয়ে পড়েন উপজেলা বিভিন্ন প্রান্তে জনগনের সুখ দুখের সাথী হতে।

এলাকাবাসী জানান,উপজেলার দক্ষিন বড়দল ইউনিয়নের সম্প্রতি কয়েকটি গ্রাম,করবস্থান,স্কুল ও ইউনিয়ন পরিষদ অফিস নদী ভাগনে পড়ে। তিনি খবর পেয়ে ছুঠে গেছেন সেখানে। সবার সাথে কথা বলেছেন কিভাবে ঐসব সমস্যার সমাধান করা যায়। তার জন্য কথা বলেছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে। এছাড়াও তিনি এলাকার উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ন সমস্যা সমাধান করেন নিজের উদ্যোগে ও আর্থিক সহযোগীতা করছেন। তিনি উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের দৃষ্টি নন্দন বারেকটিলা যা এই উপজেলার আইফেল টাওয়ার খ্যাত সম্প্রতি কড়ইগড়া গ্রাম সংলগ্ন এলাকা দিয়ে বিশাল ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে তার খবর পেয়ে তিনি স্থানীয় মেম্বার ও গন্যমান্য ব্যাক্তিগনদের ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে ভাঙ্গন এলাকা পরির্দশন করেন। এবং ভাঙ্গল রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নেবার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন করেন।

এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হয়ে একজন জনদরদী চেয়ারম্যান হিসাবে নিজেকে সবার কাছে তুলে ধরেছেন। তাই উপজেলার সর্বস্থরের জনসাধারনের মাঝে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল একজন জনগন প্রিয় ও এলাকার উন্নয়নের সারতি হিসাবে ব্যাপক প্রশংসা কুড়াচ্ছেন।

বাদাঘাট ইউনিয়নের বাসীন্দা সামিম আহমদ জানান,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুলের মত মানুষ হয় না। এক বারেই সাদা মনের মানুষ। তার কাছে সবাই সমান কোন হিংসা নেই নেই কোন অভিমান। সবার কাছে সব সময় ছুটে যাচ্ছেন। র্দীঘ ৪০ বছরের রাজনীর্তির জীবনে নিজের জন্য কিছুই করেন নি ভাবেন নি। যা করেছেন তা সব সময় জনগনের স্বার্থেই। যার জন্য তিনি সবার কাছে একজন আদর্শবান চেয়ারম্যান হিসাবে পরিনত হয়েছে।

উত্তর বড়দল ইউনিয়নের বাসীন্ধা মাসুক মিয়া বলেন,সবার চায় একজন সদ্য,সাহসী ও আদর্শবান চেয়ারম্যান যা বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুলের মাঝে আছে। তিনি জীবনের অর্ধেক সময় রাজর্নীকি করেছেন জনগনের জন্য কিন্তু নিজের জন্য কিছুই করেন নি। যার প্রমান তার জীবনে কোন কলংক নেই। সাদা মনের মনের মানুষ। সব সময় সুখে দুখে জনগনের পাশে পাওয়ায় যায় এমন চেয়ারম্যান ত জনগন চায়। যার গুন তার মাঝে আছে। তাই তিনি নির্বাচনের পর থেকে সবার একজন আপন জন হয়ে উঠেছেন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল বলেন,আমাকে জনগন ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন কিসের জন্য সুখে দুখে সব সময় তাদের পাশে থাকার জন্য। আমি সেই চেষ্টা টাই করে যাচ্ছি। আমার কোন পিছু টান নেই। আমার বাকী জীবন জনগনের স্বার্থে বিলিয়ে দিতে চাই। তাই কষ্ট হলেও সবার পাশে যাচ্ছি ভালবাসার টানে।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: