সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অবৈধ লেনদেনের মাধ্যমে নৈশপ্রহরী নিয়োগ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়ার দাবি

সিলেটের বিশ্বনাথে পালেরচক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবৈধ লেনদেনের মাধ্যমে নৈশপ্রহরী নিয়োগ দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন। এমন অভিযোগ এনে সোমবার দুপুরে বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন এলাকাবাসী ও স্কুলের প্রাক্তণ শিক্ষার্থীরা।
সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত বক্তব্যে রাব্বি আহমদ রবিন বলেন, উপজেলার পালেরচক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নৈশপ্রহরী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক বিদ্যালয় এলাকার অনেকেই আবেদন করেন। কিন্তু স্থানীয় আবেদনকারীদের বাদ দিয়ে, স্কুলের স্কেচম্যাপ এলাকার লোকদের বাদ দিয়ে অবৈধভাবে টাকা লেনদেনের মাধ্যমে ম্যানেজিং কমিটিকে আতাত করে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন তার নিজ গ্রাম রামপাশার সুনুল হক নামের একজনকে নিয়োগ দেন। যা সরকারি নীতিমালার পরিপন্থি। কিন্তু পালেরচক গ্রামের একাদিক প্রার্থী এই পদে আবেদন করেন। প্রধান শিক্ষক ও ম্যানিজিং কমিটি দুটি আবেদন ছাড়া বাকি আবেদনগুলো গ্রহণ করেননি। পরে স্কুলের স্কেচম্যাপ এলাকার বাইরের প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়া হয়। লিখিত বক্তব্যে আরও উল্লেখ করা হয়, প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন নিজের দূর্নীতি আড়াল করতে বিভিন্ন পায়তার চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি তার বিরুদ্ধে কথা বলা মানুষদের মামলার ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। এলাকাবাসী এই নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিতসহ তদন্তপূর্বক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান।
এরআগে এমন অভিযোগে গত ১২ মে তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার স্মারকলিপি দেন।
এপ্রসঙ্গে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মকবুল মিয়া কোন মন্তব্য করতে রাজি না হলেও প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন বলেছেন, কোন অনিয়ম করা হয়নি, বিধিসম্মতই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
এব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় ইউপি সদস্য জামাল মিয়া বলেছেন, প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন ম্যানিজিং কমিটিকে নিয়ে এক লাখ টাকার বিনিময়ে নিজের লোককে ওই পদে নিয়োগ দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক।
সংবাদ-সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পালেরচক এলাকার মুরব্বী মছব্বির আলী, চেরাগ আলী, পালেরচক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিটিআই কমিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, প্রবাসী দাদু ভাই ছইল মিয়া ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমদ, বিদ্যালয়ের প্রাক্তণ ছাত্র মইনুল হক, তারেকুজ্জামান, আবদুল করিম, শফিকুর রহমান, আবদুস সামাদ, রেজাউল ইসলাম, সুমন আহমদ, রিপন আহমদ, সাহাব উদ্দিন প্রমুখ।
এসময় প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাব সভাপতি মোসাদ্দিক হোসেন সাজুল, সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম খায়ের, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক রুহেল উদ্দিন, যুগ্ম- সম্পাদক নবীন সুহেল, কোষাধ্যক্ষ আক্তার আহমদ শাহেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য কামাল মুন্না, আব্দুস সালাম।

উল্লেখ্য, পালের চক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসাবে যোগদানের পর থেকেই বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন এই প্রধান শিক্ষক হেকিম উদ্দিন। প্রতি অর্থ বছরের স্লিপ ও প্রাক-প্রাথমিকের টাকা বিদ্যালয়ের অনুদান হিসাবে জমা হয়৷ কিন্তু এর অধিকাংশ টাকা তিনি আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে৷- বিজ্ঞপ্তি



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: