সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাচ্চারা সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ইভিএম, দাবি লালুপুত্রের

নিউজ ডেস্ক:: কয়েকটি বাচ্চা মাথায় করে বয়ে নিয়ে যাচ্ছে বাক্স। কারও আবার হাতেও রয়েছে কয়েকটি। দৃশ্যত সেগুলো ইভিএমের বাক্স বলেই মনে হচ্ছে। এমন কয়েকটি বাচ্চার ছবি পোস্ট করেই টুইটারে সরব হলেন আরজেডি নেতা তথা লালুপুত্র তেজস্বী যাদব। বাচ্চাদের দিয়ে ইভিএম স্থানান্তর এবং রেজিস্টার্ড নয়, এমন গাড়িতে ইভিএম নিয়ে যাওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুললেন তিনি।

বিহারের প্রাক্তন উপ-মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বীর টুইট, ‘বিহারে শিশুশ্রমিক ব্যবহার করে ইভিএম সরানো হচ্ছে। আর সেগুলো নিয়ে যাওয়া হচ্ছে রেজিস্টার্ড নয়, এমন গাড়িতে, এটা তো নিয়মবিরুদ্ধ। মুজফ্ফরপুরের একটি হোটেলে ইভিএম নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। জেলাশাসকের উপস্থিতিতে সেই হোটেলে ইভিএম পাওয়াও গেছে।’

শেষ দফার ভোট শেষ হওয়ার পর পরই কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলগুলো অভিযোগ তোলে, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, পাঞ্জাব ও হরিয়ানার বেশ কিছু অংশে ইভিএমে কারচুপি করা হচ্ছে। আর সেই অভিযোগ তুলেই ভোটগণনার আগের কয়েকদিন ধরে ইভিএম স্টোর রুমের বাইরে ২৪ ঘণ্টার নজরদারি শুরু করেছে বিরোধীরা।

উত্তরপ্রদেশের মিরাট ও রায়বেরিলিতে স্টোররুমের বাইরে কংগ্রেস কর্মীরা ২৪ ঘণ্টা বসে রয়েছেন। চণ্ডীগড়েও একই অবস্থা। তামিলনাড়ুর থুথুকুড়িতে ইভিএম সরানো হচ্ছিল বলে অভিযোগ তুলেছিলেন ডিএমকে নেত্রী কানিমোড়ি। সেখানে পুনর্নির্বাচনের দাবিও তুলেছেন তিনি। ইভিএম রুমের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখার দাবিও তুলেছেন।

তেজস্বী মঙ্গলবার টুইট করেছিলেন, ‘উত্তর ভারত জুড়ে হঠাৎ ইভিএম সরানোর ছবি ও অভিযোগ সামনে আসছে! এটা কেন? কারা এই ইভিএম সরাচ্ছে এবং কেন? কোনও ধরনের ভুল ধারণা এড়াতে নির্বাচন কমিশনের উচিত দ্রুত একটি বিবৃতি জারি করা।’

সূত্র: এই সময়



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: