সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

খাসোগির পর এবার সৌদির টার্গেট বাগদাদি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: রাজতন্ত্রের সমালোচনা করায় ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে সৌদি রাজপরিবারের বিরুদ্ধে। খাসোগির হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের রাজপরিবার সুরক্ষা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

এর মধ্যেই ফিলিস্তিনি লেখক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ইয়াদ আল বাগদাদি জানিয়েছেন, প্রয়াত সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগির মতো সৌদি সরকারের মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করায় সৌদি সরকার তাকেও হত্যার পরিকল্পনা করছে।

সৌদি সরকার তাকে টার্গেট করেছে অভিযোগ করে সোমবার নরওয়ের রাজধানীতে অসলোতে একটি সংবাদ সম্মেলন করেন এ ফিলিস্তিনি লেখক। খবর আলজাজিরার।

সংবাদ সম্মেলনে বাগদাদি বলেন, খাসোগি হত্যার অন্যতম সন্দেহভাজন আসামি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের ঘনিষ্ঠ ও রাজকীয় আদালতের মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সৌদ আল কাহতানি মানবাধিকারকর্মী, প্রতিবাদী লেখক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের টার্গেট করতে থাকেন।

সৌদি আরব ইয়াদ আল বাগদাদিকে টার্গেট করেছে জানিয়ে কয়েক দিন আগে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা নরওয়ে সরকারকে সতর্ক করেছিল। এর পর থেকে নরওয়ে সরকার বাগদাদির অবাধে চলাফেরা বন্ধ করে তাকে বিশেষ নিরাপত্তা দিচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গত বছরের অক্টোবরে তিনি প্রথম বুঝতে পারেন যে, তাকে টার্গেট করা হচ্ছে। সৌদি সরকার তার এমন কয়েকটি ফোনকল রেকর্ড ও সংরক্ষণ করেছে, যেখানে তিনি সফটওয়্যার হ্যাকিং নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

এ ছাড়া সৌদির রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের ওপর সৌদি সরকার যেসব প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করছে, সেগুলো টুইটারে নথিভুক্ত করার একটি প্রকল্পে কাজ করছিলেন ফিলিস্তিনি এ লেখক। যেটি এর আগে প্রয়াত সাংবাদিক জামাল খাসোগি করতেন।

জনপ্রিয় ফিলিস্তিনি লেখক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ইয়াদ আল বাগদাদিকে টুইটারে ১৩ লাখ মানুষ ফলো করে।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: