সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রেমিকাকে যৌনপল্লীতে বিক্রির সময় হাতেনাতে গ্রেপ্তার


প্রথমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। পরে বিয়ের আশ্বাসে কিশোরীকে (১৫) ডেকে নেন তার প্রেমিক। এর পর তাকে বিক্রি করতে সেখান থেকে সোজা চলে যান দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে। সেখানেই ‘হাতেনাতে’ ধরা পড়েন মিজানুর রহমান ওরফে জিয়ারুল ইসলাম (৩৬) নামে ওই যুবক।

গতকাল বুধবার রাতে রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়ার যৌনপল্লী এলাকার ১নং গেটের পাশে কুষ্টিয়া চুয়াডাঙ্গা বোডিং এর সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে গ্রেপ্তার করে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।

আটক মিজানুর রহমান ওরফে জিয়ারুল ইসলাম (৩৬) রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলার লক্ষীনগর গ্রামের তফিল উদ্দিন গারোয়ানের ছেলে।

প্রতারণার শিকার ওই কিশোরী জানায়, এক মাস আগে মিজানুর রহমানের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গতকাল দুপুরে সে তাকে আশুলিয়া থেকে বাসে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ফেরি পার করে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে তাকে নিয়ে আসে। এ সময় গোয়ালন্দ থানা পুলিশ বিষয়টি ধরে ফেলে মিজানুরকে গ্রেপ্তার করে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এজাজ শফী দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌনপল্লীতে বিক্রির চেষ্টাকালে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় মিজানুরকে ‘হাতেনাতে’ আটক করা হয়।

মিজানুরের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও ২/৩ জন জড়িত আছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

গ্রেপ্তার মিজানুরকে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান এজাজ শফী।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: