সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মৃত্যুর সময়ও অস্ত্র ছাড়েননি টিএসআই সেলিম মিয়া

নিউজ ডেস্ক:: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ফেরার পথে ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ শহর উপপরিদর্শক (টিএসআই) সেলিম মিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মেঘনা নদীর মোহনা চর ধলেশ্বরী এলাকায় লাশটি ভেসে উঠলে কলাগাছিয়া নৌফাঁড়ির পুলিশ সদস্যরা তা উদ্ধার করেন।

এ সময় তাঁর সরকারি পিস্তল, গুলি ও ম্যাগাজিন সঙ্গেই ছিল। নিহত সেলিম মিয়া গোপালগঞ্জের গোপীনাথপুর এলাকার ইয়ার আলী শেখের ছেলে। কলাগাছিয়া নৌফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান সকালে মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি মঈনউদ্দিন সুমনকে বলেন, ‘ভাই শোনেন, আমাদের এই ভাই (টিএসআই সেলিম মিয়া) তাঁর অস্ত্রটি ধরে রাখা অবস্থায় মৃতদেহ উদ্ধার করি।’

মৃত্যুর সময়ও অস্ত্র ধরে রাখার কারণ জানতে চাইলে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মৃত্যুর সময়ও দায়িত্ব পালন করে গেছেন টিএসআই সেলিম। পুলিশের অস্ত্র খোয়া গেলে সমস্যা হয়। ট্রলারডুবির সময় সেলিম চাইলে অস্ত্র ফেলে দিতে পারতেন। কিন্তু তিনি ছাড়েননি। সরকারি কোনো আমানত তিনি হারাননি। লাশ উদ্ধারের সময় সরকারের দেওয়া পিস্তল ছিল, গুলি ছিল, ম্যাগাজিনও ছিল।

গত ৩১ মার্চ রোববার নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার চরকিশোরগঞ্জের চরহোগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নির্বাচনী দায়িত্ব পালন শেষে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, পোলিং এজেন্ট, পুলিশ ও আনসার সদস্যসহ ১৯ জনের একটি দল ট্রলারে চড়ে বৈদ্যেরবাজার ঘাটের উদ্দেশে রওনা দেন।

সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রবল ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলারটি মেঘনা নদীর চরহোগলা এলাকায় উল্টে যায়। এ সময় ১৬ জন তীরে উঠতে সক্ষম হলেও প্রিসাইডিং কর্মকর্তা, একজন পুলিশ কর্মকর্তা ও একজন আনসার সদস্য নিখোঁজ ছিলেন। ঘটনার পরপর তাঁদের উদ্ধারে অভিযান চালায় ডুবুরিরা।

সোমবার সকালে নারী আনসার সদস্য রীতা আক্তারের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরপর মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে চরকিশোরগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ এলাকার মেঘনা নদীর মোহনা থেকে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা বোরহান উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে নৌবাহিনীর ডুবুরি দল। নিহত বোরহান উদ্দীন সোনারগাঁ উপজেলার মেঘনাঘাট শাখার ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) ব্যবস্থাপক ছিলেন।

তাঁর বাড়ি নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের রামনগর গ্রামে। তিনি সোনারগাঁর মোগড়াপাড়া চৌরাস্তা এলাকার হাবিবপুর গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তাঁর স্ত্রী ও দুই ছেলে রয়েছে। নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক মামুনুর রশিদ জানান, নিখোঁজ তিন ব্যক্তির সবারই মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

-এনটিভি



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: