সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ১৮ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাহুল গান্ধী হিন্দু নন, দাবি বিজেপির

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে দেশটির ক্ষমতাসীন এবং বিরোধীদলীয় নেতারা ততই পরস্পরকে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে বিদ্ধ করছেন। দেশটির প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে এবার নিশানা করলেন বিজেপির জ্যেষ্ঠ নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তার দাবি, রাহুল গান্ধী হিন্দু নন; তবে তিনি হিন্দু হওয়ার ভান করছেন।

এখানেই থেমে নেই তার আক্রমণ। সুব্রহ্মণ্যম স্বামী বললেন, রাহুল গান্ধীর কাছে চারটি দেশের পাসপোর্ট রয়েছে। দেশটির টেলিভিশন চ্যানেল জি নিউজের এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এমন দাবি করেন। বিজেপির এই নেতার দাবি, রাহুল ভিঞ্চি নামে রাহুল গান্ধীর একাধিক দেশের পাসপোর্ট রয়েছে।

priyanka

এমনকি রাহুল গান্ধীর চেলি পরা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। বলেন, চেলি কী করে পরে তাও জানা নেই তার। স্বামীর দাবি, পোশাকের ওপর চেলি পরেন রাহুল গান্ধী। কিন্তু চেলি পরতে হয় খালি গায়ে। সেটাই চেলি পরার প্রকৃত পদ্ধতি। চেলি পরলে গায়ে সেলাই করা কোনো পোশাক রাখা যায় না। রাহুল গান্ধী সম্ভবত সেকথা জানেন না।

সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর দাবি, রাহুল গান্ধী সপ্তাহে ছয়দিন হিন্দু হওয়ার অভিনয় করেন। রোববার গির্জায় গিয়ে পাপস্খলন করেন। এমনকি প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকেও মন্দিরে গিয়ে নিজেকে হিন্দু প্রমাণ করতে বাধ্য করে কংগ্রেসিরা। কারণ, বর্তমান পরিস্থিতিতে নিজেকে হিন্দু প্রমাণ করতে না পারলে কংগ্রেস যে টিকতে পারবে না তা বুঝতে পেরেছে তারা।

Subramanian-Swamy

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ম্যায় ভি চৌকিদার অভিযানের বিরোধিতা করে স্বামী বলেন, আমি ব্রাহ্মণ। তাই চৌকিদার হতে পারব না। গিতায় আমার কর্ম লেখা আছে। আমার কাজ চোর ধরা নয়, তাকে সাজা দেয়া। ব্রাহ্মণের জ্ঞানী ও ত্যাগী হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সূত্র : জি নিউজ।



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: