সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এখন রক্তপিপাসুদেরই জয় জয়কার : ফখরুল

নিউজ ডেস্ক:: ‘দেশে এখন রক্তপিপাসুদেরই জয় জয়কার’ মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘দেশের মানুষকে ভয় ও শঙ্কার মধ্যে ডুবিয়ে দিয়ে নির্বিঘ্নে দেশ শাসন করতে চাই বর্তমান সরকার। কিন্তু মনুষ্যসমাজে কখনোই কোনো স্বৈরশাসক নিজেদের অবৈধ শাসনকে টিকিয়ে রাখতে পারেনি। গণতান্ত্রিক শক্তির উত্থানে স্বৈরাচারের পতন ঘটেছে দেশে দেশে। বাংলাদেশেও স্বৈরাচারী শাসকের পতন অত্যাসন্ন।’

বিএনপির সহ দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে মঙ্গলবার দুপুরে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।

ফখরুল বলেন, ‘আজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়া জলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গণে স্বাধীনতা ফলক-এ শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের জন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত হয়। এ সময় পুলিশ অতর্কিতে হামলা চালিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় বিএনপির স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন, বিএনপি নেতা শামীমুল হাসান আরজু, এ কে বিশ্বাস বাবু, যুবদল নেতা পিন্টুসহ ১০/১২ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে। এ ছাড়াও ফরিদপুর মহান স্বাধীনতা দিবসের এ দিনে বিএনপির পক্ষ থেকে স্থানীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করতে গেলে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদারেছ আলী ঈসা, ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক জুলফিকার হোসেন জুয়েল, জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ কে এম কিবরিয়া স্বপনসহ ২৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে, আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘পুলিশ ও আওয়ামী সন্ত্রাসীদের এ আক্রমণ সুপরিকল্পিত এবং দেশব্যাপী পুলিশ দিয়ে সরকারি আধিপত্য বিস্তারেরই নগ্ন বহিঃপ্রকাশ। নির্বাচন, প্রশাসন, আইন-আদালতসহ সবকিছুর ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার অংশ হিসেবেই এখন সার্বজনীন জাতীয় দিবসগুলোকেও একতরফা দলীয়করণ করতেই এ সমস্ত আক্রমণ চালানো হচ্ছে। নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও তাদের ওপর পৈশাচিক আক্রমণ নীলনকশা অনুযায়ী চালানো হচ্ছে। ’

তিনি বলেন, ‘মানুষের মৌলিক অধিকার উপেক্ষা করে জনগণকে প্রান্তিক পর্যায়ে ঠেলে দিয়েছে বর্তমান সরকার। সর্বত্র তাদের ব্যর্থতার জন্য যে ধিক্কার উঠেছে সেটিকে দিকভ্রান্ত করতেই বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও রক্তাক্ত করা হচ্ছে। উৎপীড়ন ও জুলুমের পরিকাঠামোর মধ্যেই জীবন-যাপন করতে হচ্ছে বিএনপি নেতাকর্মীদের। দেশের মানুষের জীবন-জীবিকার কোনো নিরাপত্তা নেই। বেকারত্ব, কর্মসংস্থানের অভাবে লাখ লাখ মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। আশা-আকাঙ্ক্ষা ও বেঁচে থাকার স্বপ্ন মানুষের মন থেকে হারিয়ে গেছে। ক্ষমতাসীনদের মদদে সমাজের সর্বত্র সন্ত্রাসীদের আধিপত্য বজায় থাকছে। গুম-খুন ও বিচার বহির্ভূত হত্যাকে সহনীয় করতে সরকার এগুলোকে প্রাত্যহিক কাজে পরিণত করছে। চোখ রাঙানি দিয়ে সরকার জনগণকে শাসন করতে চায়। ন্যায় বিচারকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে বলেই সরকারি বাহিনীগুলো ও ক্ষমতাসীনদের সন্ত্রাসীরা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গুম-খুন-মিথ্যা মামলা গ্রেফতার, শারীরিকভাবে আক্রমণসহ দেশব্যাপী রক্ত ঝরাচ্ছে।’

কুষ্টিয়ায় গ্রেফতার নেতাকর্মীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি এবং ফরিদপুরে বিএনপি নেতাদের ওপর নৃশংস হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: