সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ২২ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

উপজেলা নির্বাচন: ৪ ঘন্টায় ভোট পড়েছে মাত্র ৬টি!

নিউজ ডেস্ক:: সকাল পৌনে ১০টা। বগুড়ার প্রাণকেন্দ্র সাতমাথার জিলা স্কুল জনমাবন শুন্য। নিরাপত্তা প্রহরী কয়েকজন ব্রেঞ্চে বসে অলস সময় কাটাচ্ছেন। বুথের ভেতরে গিয়েও দেখা গেলো একই চিত্র। সবাই অপেক্ষা করছেন ভোটারের। কিন্তু কোন ভোটার আসছে না। ফলে গল্পগুজবেই সময় কাটাচ্ছেন এজেন্ট এবং নির্বাচন কর্মকর্তারা। এই কেন্দ্রে মোট ভোটার ১৯৭৫। চার ঘন্টায় ভোট পড়েছে মাত্র ৬টি।

একই চিত্র দেখা গেলো শহরের নারুলী উত্তরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বগুড়া সদর উপজেলার সব চেয়ে বেশি ভোট এই কেন্দ্রে। মোট ভোটার ৬ হাজার। সাড়ে আটটা পর্যন্ত ওই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে মাত্র ১টি।

গাবতলী উপজেলার চকবোচাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার আবদুল মতিন জানান, সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভোট পড়েছে মাত্র ৪টি। এই কেন্দ্রে নৌকা মার্কা ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থীদের এজেন্ট খুঁজে পাওয়া যায়নি।

শাজাহানপুর মাঝিড়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২ ঘন্টায় ১২৩ ভোট। মোট ভোটার ৩৬০৮। আদমদীঘি উপজেলার কুসুম্বী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার রবিউল আলম জানান, ২৭১৪ জন ভোটারের মধ্যে সকাল ৯টা পর্যন্ত শতকরা ১ দশমিক ৪৭ ভাগ অর্থাৎ ৪০ ভোট কাস্ট হয়েছে।

আদমদীঘি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নৌকা মার্কার প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হওয়ায় এই উপজেলায় ভোট প্রদানে ভোটারদের মধ্যে আগ্রহ একেবারেই কম। সারিয়াকান্দি উপজেলার নিজ বলাইল উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রেও একই চিত্র দেখা গেছে। এই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার হাবিবুর রহমান আকন্দ জানান, ৩৯৪০ ভোটের মধ্যে সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ২০ ভোট পড়েছে।

সকাল ৯টায় শহরের ঝোপগাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১০টি ভোট পড়েছে বলে জানান প্রিসাইডিং অফিসার আবদুল মতিন। এই কেন্দ্রে ২৩৩৫ ভোটার রয়েছে। এখানে নৌকা মার্কার এজেন্ট দেখা গেলেও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থীর মোটরসাইকেল মার্কার কোনো এজেন্ট নেই। শহরের মালতিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অলস সময় কাটাচ্ছেন। ভোটার উপস্থিতি না থাকার কারণে তারা নিজেদের মধ্যে খোশ গল্প করে সময় কাটাচ্ছেন।

প্রিসাইডিং অফিসার আলমগীর হোসেন জানান, ভোটার উপস্থিতি একেবারেই নাই। সকাল ৯টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে মাত্র ৪টি। তবে ভোটার উপস্থিতি না থাকলেও ভোট কেন্দ্র এবং বাইরের পরিস্থিতি বেশ ভালো। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা রয়েছে সতর্ক অবস্থায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য জানিয়েছেন, এবার তাদের প্রতি কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। যেকোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা কঠোর হস্তে দমন করতে প্রস্তুত রয়েছেন তারা।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত) আরিফুর রহমান ম-ল জানান, শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠু ভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। কাউকে বিশৃঙ্খলা করার সুযোগ দেয়া হবে না।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: