সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছয় শর্ত দিয়ে রিয়ালে ফিরেছেন জিদান

স্পোর্টস ডেস্ক:: ২৮৪ দিন পর আবারও রিয়াল মাদ্রিদের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিলেন জিনেদিন জিদান। দীর্ঘ ৯ মাসেরও বেশি সময় বাইরে থাকার পর আবারও তার রিয়ালে ফেরার পর জ্বল্পনা-কল্পনা শুরু হয়, কিভাবে ফিরলেন জিদান? কি শর্ত তিনি দিয়েছেন, তার দেয়া কোন কোন শর্ত মেনে নিয়েছে রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ?

নানা অনুসন্ধানে জানা গেছে, ৬টি শর্ত দিয়েছিলেন জিদান। তার এই ৬ শর্ত মানা হলেই কেবল রিয়ালের কোচ হিসেবে ফিরে আসতে রাজি হবেন তিনি। শেষ পর্যন্ত তার দেয়া এই ৬ শর্ত রিয়াল প্রেসিডেন্ট মানতে রাজি হওয়ার পরই বার্নাব্যুতে পূনরায় আসার সিদ্ধান্ত পাকা করেন জিদান।

জিদানের এই ৬ শর্তের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, দলের ওপর তার পূর্ণ নিয়ন্ত্রন। একাদশ বাছাই, দল পরিচালনা- সর্বক্ষেত্রে একক নিয়ন্ত্রণ থাকবে কোচের। এখানে অন্য কারও হস্তক্ষেপ থাকবে না। খেলোয়াড় বেচা-কেনার পূর্ণ স্বাধীনতা থাকবে জিদানের ওপরই। এই নিশ্চয়তা পাওয়ার পরই রিয়ালের কোচের দায়িত্ব নেয়ার বিষয়ে রাজি হয়েছেন জিদান।

প্রায় তিন মৌসুম কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করে রিয়ালের হয়ে ৯টি ট্রফি জিতেছিলেন তিনি। যার মধ্যে টানা তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এবং একটি লা লিগা শিরোপা। সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের পর সবাইকে বিস্মিত করে রিয়াল ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি গত বছর মে মাসে।

এরই মধ্যে খুবই নাজুক অবস্থায় পতিত হলো লজ ব্লাঙ্কোজরা। কোচ হুলেন লোপেতেগুইকে বরখাস্ত করে আনা হলো সান্তিয়াগো সোলারিকে। কিন্তু সোলারির অধীনে ইতিহাসের সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে রিয়াল। এক সপ্তাহের ব্যবধানে সব হারিয়ে ফেলে তারা। কোপা ডেল রে, লা লিগা এবং চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, আগামী চ্যাম্পিয়ন্স লিগও হয়তো খেলা কষ্টকর হয়ে যাবে তাদের জন্য।

এরই মধ্যে গুঞ্জন, সোলারিকে বাদ দিয়ে আনা হবে হোসে মরিনহোকে। কিন্তু রিয়ালের সাবেক এক প্রেসিডেন্ট জানিয়েছিলেন, আয়াক্সের কাছে হেরে ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ কল করেন জিদানকে এবং তাকে ফিরে আসার আহ্বান জানান। শেষ পর্যন্ত রিয়াল ভ্যায়াদোয়িদকে ৪-১ গোলের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করার পরও সান্তিয়াগো সোলারিকে বাদ দিয়ে ফিরিয়ে আনা হলো জিদানকে।

জানা গেছে, শুধু দলের ওপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণই নয়, রিয়ালে বর্তমান দলটিতে যে সব খেলোয়াড় রয়েছেন তাদের মধ্যে জিদান যাদেরকে চান না তাদের বিক্রি করে দিতে হবে। মার্সেলো এবং ইসকোকে কোনোভাবেই বিক্রি করা যাবে না। সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, যে নেইমারকে রিয়ালে আনার জন্য চারদিকে এত গুঞ্জন, জিদান সেই নেইমারকেই চান না রিয়ালে আনতে। এছাড়া হামেশ রদ্রিগেজকে ফিরিয়ে আনার যে গুঞ্জন কিংবা দাবি, সেটা বাস্তবায়ন করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। জিদানের বড় দাবি, ফরাসি ফুটবলার কাইলিয়ান এমবাপেকে আনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে।

এছাড়া জানা গেছে, জিদানের সঙ্গে নতুন যে চুক্তি হয়েছে এবং সেখানে তার যে পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে, তাতে তিনি হয়ে গেছেন বিশ্বের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত কোচ। তিন বছরের জন্য করা হয়েছে এই চুক্তি। অর্থ্যাৎ, ২০২২ সাল পর্যন্ত রিয়ালের কোচ থাকবেন জিদান।

রিয়ালে আসতে জিদানের দেয়া ছয় শর্ত
১. দলের ওপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ
২. যাদের চাই না তাদেরকে বিক্রি করে দিতে হবে
৩. মার্সেলো এবং ইসকোকে বিক্রি করা যাবে না
৪. নেইমারকে কেনা যাবে না
৫. হামেশকে ফেরানো যাবে না
৬. এমবাপেকে কেনার সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে হবে



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: