সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মোদির গুজরাট থেকে কংগ্রেসের প্রচারণা শুরু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মঙ্গলবার মোদির রাজ্য গুজরাটের আহমেদাবাদে উচ্চ পর্যায়ের একটি বৈঠকের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছে কংগ্রেস। মহাত্মা গান্ধী ‘ডান্ডি মার্চ’ নামে ১৯৩০ সালের ১২ মার্চ থেকে শুরু করে ২৪ দিনের যে অহিংস আন্দোলন করেন তার অনুকরণে একই তারিখ থেকে নির্বাচনী মাঠে নেমেছে দলটি।

মোদির ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংস্থাকে (আরএসএস) ক্ষমতা থেকে হটাতে দলটির উচ্চপর্যায়ের নীতি-নির্ধারণী দল কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি (সিডব্লিউসি) মোদির রাজ্য গুজরাটের আহমেদাবাদ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে।

গত রোববার বিকেলে ভারতের প্রধান নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা লোকসভার ৫৪৩টি আসনের নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এবারের লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে সাত দফায়। আগামী ১১ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে সাত দফার ভোটগ্রহণ শেষ হবে ১৯ মে। ভোটগণনা করে ফলাফল ঘোষণা হবে আগামী ২৩ মে।

কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দলটির সভাপতি রাজীব গান্ধী ও তার মা সোনিয়া গান্ধী, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও সদ্য দলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়া রাজীবের বোন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তাছাড়া কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ নেতারাও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বলেন, ‘মহাত্মা গান্ধীর ঐতিহাসিক এই ডান্ডি মার্চের বার্ষিকীতে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি বিজেপি ও আরএসএসের ফ্যাসিবাদী, ঘৃণা, প্রতিহিংসা ও বিভেদ সৃষ্টিকারী মতবাদকে পরাজিত করার শপথ করছে।’

বৈঠক শেষে রাহুল গান্ধী জন সংকল্প সমাবেশে যোগ দেন। যেখানে ‘জয় জওয়ান, জয় কিষাণ’ স্লোগানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

কংগ্রেসের সাবেক দলীয় প্রধান সোনিয়া গান্ধী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মোদি ভুক্তভোগী মানুষকে নিয়ে গেম খেলছেম, যখন প্রকৃতপক্ষে সাধারণ মানুষ নানান লাঞ্চনার শিকার।’

কংগ্রেসদলীয় সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বলেন, ‘কংগ্রেসের উচিত হবে এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় ইউপিএস জোটের অর্জনগুলোকে তুলে ধরা। বিশেষ করে দলের যেসব নীতি মানুষের জীবনমানের উন্নতি ঘটিয়েছে।’ তিনি মোদির সরকারের প্রতি অভিযোগ তুলে বলেন, ‘তারা মিথ্যা প্রচারণা চালিয়ে মানুষের সর্বনাশ করার চেষ্টা করছে।

গুজরাটের আহমেদাবাদে অবস্থিত সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল ন্যাশনাল মেমোরিয়ালে সিডব্লিউসি নামে কংগ্রেসের ওই নীতি নির্ধারণী বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। গুজরাটে ৫৮ বছর পর সিডব্লিউসির বৈঠক অনুষ্ঠিত হলো। সর্বশেষ বৈঠকটি হয় গুজরাটের ভবনগরে ১৯৬১ সালে।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: