সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এম.সি কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বচনের দাবিতে মিছিল-সমাবেশ,অধ্যক্ষ বরাবর স্বারকলিপি পেশ

দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে ছাত্র সংসদ নির্বাচন বন্ধ , ক্যাম্পাসে নেই ছাত্রদের নির্বাচিত প্রতিনিধি ,অকার্যকর ছাত্র সংসদ ভবন । এই পরিস্থিতিতে অবিলম্বে এম.সি কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবিতে মিছিল সমাবেশ ও স্মারকলিপি পেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এম.সি কলেজ শাখা ।

৫ মার্চ (মংঙ্গলবার) সকাল ১১ টায় এম.সি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এম.সি কলেজ শাখার আহবায়ক সাদিয়া নোশিন তাসনিমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট সিলেট নগর শাখার সভাপতি সঞ্জয় কান্ত দাশ , কলেজ শাখার সংগঠক আকরাম হোসেন ,সুমিত কান্তি পিনাক প্রমুখ ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন ,সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার বেসরকারিকরণ বাণিজ্যিকীকরণ এবং শিক্ষাঙ্গণের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিতে আন্দোলন পরিচালনা করে আসছে। আপনারা অবগত আছেন যে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে দীর্ঘ ২৮ বছর পর আগামী ১১ মার্চ’১৯ ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কারণে সারাদেশের প্রতিটি ক্যাম্পাসে ছাত্র সংসদ নির্বাচন প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। শুধু এই কারণেই নয়,১৯৯০পরবর্তী সময় থেকে প্রতিটি ক্যাম্পাসে ছাত্র সংসদ নির্বাচন বন্ধ থাকায় শিক্ষাঙ্গণে একদিকে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সন্ত্রাস দখলদারিত্ব অন্যদিকে সংকোচিত হয়েছে শিক্ষার অধিকার। একটি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রাণ হলো তার শিক্ষার্থীরা,কিন্তু তাদের মত প্রকাশের প্রাতিষ্ঠানিক সুযোগটুকু দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ আছে। ফলে শিক্ষাঙ্গণে আলাপ-আলোচনা,গ্রহণ-বর্জণের মাধ্যমে যে গণতান্ত্রিক পরিবেশ ও মনন তৈরি হবার কথা তা প্রবলভাবে বিঘিœত হচ্ছে। এই গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াটি বাধাগ্রস্ত হওয়ার কারণে ক্যাম্পাসে সময়ে সময়ে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনের আধিপত্য প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বিশেষত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজগুলোর অবস্থা আর করুণ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গঠন কাঠামোর কারণে প্রায় ২৮লক্ষ শিক্ষার্থীরা তাদের পাঠদান,সিলেবাস,কলেজ পরিচালনা পদ্ধতি সম্পর্কে এমনিতেই কোন মতামত দেয়ার সুযোগ নেই,তার উপর ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হওয়ায় ক্যাম্পাসগুলো আজ ভীষণভাবে প্রাণহীন।সিলেট তথা বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী কলেজগুলোর মধ্যে এম.সি কলেজ অন্যতম। অথচ শতাব্দী প্রাচীণ এ প্রতিষ্ঠানের গৌরব যেন আজ অনেকটাই ম্লান। আমাদের জাতীয় মুক্তির সংগ্রামে এম.সি কলেজের গৌরব উজ্জ্বল ভূমিকা ছিলো। বায়ান্নের ভাষা আন্দোলন,ঊনসত্তরের গণঅভ্যুথান এবং মহান মুক্তিযোদ্ধে এমসি কলেজ এ অঞ্চলের মুক্তিকামী মানুষকে পথ দেখিয়েছে। কিন্তু ১৯৯০ পরবর্তী সময় অর্থাৎ প্রায় ২৮ বছর ধরে বন্ধ আছে এম.সি কলেজের ছাত্র সংসদ নির্বাচন। এমন কি আজ ছাত্র সংসদ ভবনটি পর্যন্ত যথাযথ কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে না, শুধু তাই নয় ছাত্র সংসদ নির্বাচন না হলেও গত ২৮ বছর ধরে ছাত্রদের কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে ছাত্র সংসদ ফি (২৫টাকা) । এ রকম পরিস্থিতি বন্ধ হয়ে আছে ক্যান্টিন, ক্যাম্পাসে পানীয় জল এবং স্যানিটেশনের রয়েছে তীব্র সংকট। পরিবহণ-আবাসন ব্যবস্থার অপ্রতুলতা আছে কিন্তু ছাত্রদের নির্বাচিত প্রতিনিধি না থাকায় তা যতাযথ ভাবে তুলে ধরা যাচ্ছে না। তাই এই সমাগ্রিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা অবিলম্বে এম.সি কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন আয়োজনের দাবি জানাচ্ছি।

সমাবেশ শেষে একটি মিছিল গোটা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে অধ্যক্ষ কার্যালয়ে সমবেত হয় । এম.সি কলেজের অধ্যক্ষ নিতাই চন্দ্র চন্দ দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি গ্রহণ করেন ,এবং দ্রুততম সময়ে পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দেন । – বিজ্ঞপ্তি



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: