সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ৩৫ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘রাসেলের হত্যাকারীদের আশ্রয়দাতাদের নির্মূলে শপথ নিতে হবে’

নিউজ ডেস্ক:: জাতির পিতাসহ শিশু রাসেলের হত্যাকারীদের যারা আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে, সাথে রেখেছে, তাদের বাংলার মাটি থেকে নির্মূল করতে শিশু কিশোরদের দৃঢ় শপথ নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

মঙ্গলবার জাতীয় যাদুঘরের মিলনায়তনে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পুরস্কার বিতরণী ও আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এক শ্রেণির মানবাধিকার কর্মী আছেন যারা মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের কথা বলেন- কিন্তু তারা শিশু রাসেলের মতো জঘন্য হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে কোনো কথা বলেন না। শিশু হত্যার প্রতিশোধ নিতে শপথ নিতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতার রূপকার। দেশ গঠনে বঙ্গবন্ধু পরিবারের অবদান অসামান্য। এ পরিবারে রয়েছে ক্রীড়া সংগঠক, সমাজসেবক ও রাজনৈতিক কর্মী। ১৯৭৫ সালে রাতের অন্ধকারে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে দেশ থেকে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস মুছে ফেলার অপচেষ্টা চলছিল। কিন্তু তাদের সে অপচেষ্টা সফল হয়নি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

আয়োজক সংগঠনের মহাসচিব মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যর মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা তরফদার মোহাম্মদ রুহুল আমিন, রাজনৈতিক নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার, সাংগঠনিক সচিব কে এম শহিদউল্যা, প্রচার সম্পাদক রাশেদুল হক এবং সহ-দফতর সম্পাদক আসাদুল হক প্রমুখ।

প্রতিমন্ত্রী পরে শিশু কিশোরদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: