সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রোজ মার খাওয়ার চেয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধ করা ভাল : রামদেব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: রোজ রোজ মার খাওয়ার চেয়ে পাকিস্তানকে শিক্ষা দিতে যুদ্ধে লড়াই করা উচিত ভারতের। এমনই মন্তব্য করলেন ভারতের বিখ্যাত ইয়োগা গুরু বাবা রামদেব। পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে এ মন্তব্য করেছেন তিনি।

রামদেব বলেছেন, পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিমের প্রদেশ বালুচিস্তানের বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনে ভারতের সব ধরনের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া উচিত। পাকিস্তান ও সন্ত্রাসবাদীদের মুখের ওপর জবাব দিতে হবে। সবার আগে পাকিস্তানকে তিন টুকরো করে দিতে হবে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় আত্মঘাতী সন্ত্রাসী হামলায় ৪০ সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যু হয়। এই হামলার দায় স্বীকার করে পাক জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মোহাম্মদ।

রামদেব বলেছেন, পাকিস্তানের জঘন্য কার্যকলাপে ভারতের প্রায় ৫০ হাজার সেনা ও সাধারণ মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। এখন আমাদের পাকিস্তানকে উচিত শিক্ষা দিতে হবে। রোজ রোজ মার খাওয়ার চেয়ে বরং যুদ্ধে লড়াই করা দরকার এবং পাকিস্তানকে এমন শিক্ষা দিতে হবে যাতে তারা আগামী ৫০ বছর উঠে দাঁড়াতে না পারে।

পতঞ্জলির একটি বিপণি বিতানের উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের রামদেব বলেন, বালুচিস্তানে যারা স্বাধীনতার জন্য লড়াই করছে, তাদের আর্থিক ও রাজনৈতিকভাবে সাহায্য করা উচিত ভারতের। তাদেরকে অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করাও উচিত ভারতের। বালুচিস্তানকে স্বাধীন করতে সব ধরনের সহায়তা করা উচিত।

রামদেবের মতে, পাক অধিকৃত কাশ্মীরকেও ভারতের সঙ্গে যুক্ত করতে হবে। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে থাকা সন্ত্রাসবাদীদের ঘাঁটিগুলো ধ্বংস করতে হবে।

তিনি বলেন, পাকিস্তান যাতে সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়, সে জন্য দেশটির বিদ্রোহীদের সমর্থন দেয়া উচিত ভারতের। পাকিস্তান তাদের জঘন্য কার্যকলাপ বন্ধ না করা পর্যন্ত এটা করতে হবে। এবিপি আনন্দ।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: