সর্বশেষ আপডেট : ২৮ মিনিট ৪২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘মোদি শাড়ি’তে ব্যাপক আলোড়ন ভারতে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: বিয়ের কার্ড থেকে স্বর্ণ কিংবা রূপার অলঙ্কারে এতদিন দেখা যেত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুখাবয়ব। কিন্তু এবার মোদি জ্বর দেশটিতে এমনভাবে ছড়িয়ে পড়েছে যে, নারীদের শাড়িতেও দেখা যাচ্ছে মোদিকে।

আপনি যদি সম্প্রতি ভারতের পশ্চিমাঞ্চলের প্রদেশ গুজরাটের সুরাট সফরে যান, তাহলে সেখানে গিয়ে নারীদের শাড়িতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মুখের ছাপ দেখতে পাবেন; আর এতে আশ্বর্যান্বিত হওয়ার কিছু নেই।

Modi-sharee-1

দেশটির সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভা নির্বাচনের ঘণ্টা বাজছে, এর মাঝেই সুরাটের এক দোকানদার মোদি শাড়ি বাজারে এনেছেন।

মোদির রাজ্য গুজরাটে দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই শাড়ি। দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে নতুন এই শাড়ি বাজারে আসার খবর। শাড়ি কেনার জন্য ওই দোকানের দিকে যেতে দেখা যাচ্ছে নারীদের। মোদির মুখাবয়বের ছাপের বেশ কয়েক ধরনের শাড়ি পাওয়া যাচ্ছে সুরাটে।

দোকানদার রনক শাহ বলেন, ‘নতুন এই শাড়ি ডিজিটাল উপায়ে প্রিন্ট করা হয়েছে, যা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। আমরা মোদিজির একটি শাড়ি বাজারে এনেছি। এটি নারীদের বেশ সাড়া ফেলেছে।’

Modi-sharee-2

তিনি বলেন, ‘‘আমরা তিন-চার ধরনের ‘মোদি শাড়ি’ এনেছি। যা এখন বিক্রি হচ্ছে। তবে আমরা আরো কিছু রাজনীতিক এবং নেতার নামে শাড়ি আনার পরিকল্পনা করছি।’’

ফুলের ছাপের পাশে মোদির মুখ আঁকা কিংবা শুধু মোদির মুখাবয়ব রয়েছে এমন শাড়ির ব্যাপক বিক্রি হচ্ছে সুরাটে। প্রত্যেক পিস শাড়ির দাম প্রায় এক হাজার রূপি।

Modi-sharee-3

একজন ক্রেতা বললেন, আমি ওই দোকানে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদির ছবিযুক্ত শাড়ি দেখেছি। আসলেই এটি আমার পছন্দ হয়েছে এবং আমি শাড়িটি কিনেছি। তার শাড়ি পরতে পারাটা গর্বের বিষয়।

সূত্র : মুম্বাই মিরর।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: এ. আর. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: