সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বড়লেখায় দুর্ঘটনাকে হামলার ঘটনা সাজিয়ে মামলা দেয়ার অভিযোগ

আব্দুর রব, বড়লেখাঃ বড়লেখায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনাকে হত্যা চেষ্টা ও ছিনতাইর ঘটনা সাজিয়ে মামলা করার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার প্রায় দেড় মাস পর গত ৩ ফেব্রæয়ারি বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মোটরসাইকেল চালকের বিরুদ্ধে হামলা ও ছিনতাইর মামলা দেন আহত আরোহী এইচএসসি পরীক্ষার্থী তানভির রানা ফয়েজের বড়ভাই কবির আহমদ। তবে বাদী বলেছেন প্রথমে দুর্ঘটনা মনে করেলও আহত তানভিরের জ্ঞান ফেরার পর জানতে পারেন তার ওপর হামলা, ছিনতাই ও মুক্তিপন আদায়ের চেষ্টা চালানো হয়। এজন্যই তিনি মামলা করেছেন। বিজ্ঞ আদালত থানার ওসিকে মামলার এফআইআর করার ও ২০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

জানা গেছে, এ মামলায় উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউপির পাতন গ্রামের আপ্তাব আলীর ছেলে জুয়েল আহমদকে প্রধান ও ৪-৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়। কিন্তু আসামী পরিবারের দাবী গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর ইউপির ভট্টশ্রী গ্রামের মুরগীয়া বাড়ী এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছিল। এতে তানভির রানা ফয়েজ গুরুতর আহত হন। ২৫ ডিসেম্বর রানার ভাই মামলার ২ নম্বর সাক্ষী জুবের আহমদ ফেসবুকে তার ভাই বাইক এক্সিডেন্ট করেছে বলে পোষ্ট দেন। দীর্ঘ এক মাসেরও বেশি রানা সিলেটসহ ঢাকায় চিকিৎসা নিয়েছেন। কিন্তু হঠাৎ এ ঘটনায় আদালতে মামলা করায় এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। জুয়েলের পরিবারের দাবি কারো প্ররোচনায় দুর্ঘটনাকে তানভির রানার পরিবার হত্যা চেষ্টা ও ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজিয়ে মামলা করেছেন।

মামলার বাদী রানার বড়ভাই কবির আহমদ জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় বিয়ানীবাজার থেকে তার ভাইকে উদ্ধার করে সিলেটে নিয়ে যান। প্রথমে সবাই দুর্ঘটনাই মনে করেছিলেন। অনেকে ফেসবুকে এক্সিডেন্ট হিসেবে পোষ্টও দেন। রানার জ্ঞান ফিরলে প্রকৃত ঘটনা জানতে পেরে আদালতের আশ্রয় নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। মামলায় উল্লেখিত সব ঘটনাই সত্য। জুয়েল তাকে মোটরসাইকেলে তুলে কিছু দূর যাবার পর আক্রমণের ঘটনা ঘটায়। দীর্ঘ এক মাসেরও বেশি সময় চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। কয়েকটি বড় অপারেশন হয়েছে। চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার সুস্থ্য হওয়ার সম্ভাবনা ১০ ভাগ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর দুপুরে ভট্টশ্রী গ্রামের মুরগীয়া বাড়ী এলাকায় এক বিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে জুয়েলের মোটরসাইকেলে উঠেন তানভির রানা ফয়েজ। বিয়ে বাড়ির অদূরে মুরগীয়া বাড়ী এলাকায় একটি গাভীকে বাঁচাতে নিয়ন্ত্রণ হারান মোটরসাইকেল চালক জুয়েল। এতে তিনিসহ গুরুতর আহত হন আরোহী তানভির রানা ফয়েজ। স্থানীয়রা মোটরসাইকেল চালক ও গুরুতর আহত আরোহীকে উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার হাসপাতালে পাঠান। সেখানে তানভিরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও ঢাকা মেডিকেলসহ আরেকটি বেসরকারি মেডিকেলে চিকিৎসা করান।

আদালতে দেয়া অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উত্তর শাহবাজপুর ইউপির সায়পুর গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে তানভির রানা ফয়েজ বিয়ানীবাজার সরকারী ডিগ্রী কলেজের এবারের এইচএসসি পরীক্ষার্থী। ২৪ ডিসেম্বর ফরম ফিলাপ করতে কলেজের উদ্দেশ্যে সে শাহবাজপুর বাজারে গাড়ির অপেক্ষা করছিল। এসময় পূর্বপরিচিত জুয়েল আহমদ বিয়ানীবাজার যাচ্ছে জানিয়ে তার পালসার মোটর সাইকেলে পরীক্ষার্থী রানাকে তুলে রওয়ানা দেয়। কিন্তু জুয়েল সোজা রাস্তায় বিয়ানীবাজার না গিয়ে গ্রামের রাস্তায় ঢুকে মুরগীয়া বাড়ির রাস্তার সম্মুখে হঠাৎ মোটরসাইকেল থামিয়ে অজ্ঞাত ৪-৫ দুর্বৃত্তসহ জুয়েল কিল-ঘুষি ও লাথি মেরে রানার সাথে থাকা প্রায় ৭ হাজার টাকা ও ৭০ হাজার টাকার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। বাড়িতে ফোন করে ২ লাখ টাকা মুক্তিপন আদায় করে দিতে চাপ প্রয়োগ করে। রাজি না হওয়ায় তার মেরুদন্ডসহ হাড়গোড় ভেঙ্গে মৃত ভেবে রাস্তায় ফেলে যায়।

বিবাদী জুয়েলের ভাই কবির হোসেন বলেন, ‘অভিযোগে যা উল্লেখ করা হয়েছে সব মিথ্যা। রানা একটি বিয়ে বাড়ি থেকে আমার ভাইয়ের গাড়িতে ওঠে। এরপর কিছু দূর যাবার পর গাভী বাঁচাতে দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু হঠাৎ শুনি আদালতে আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এটা সম্পুর্ণ সাজানো।’

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইয়াছিনুল হক বুধবার জানান, ‘আদালতের আদেশের কপি পেয়েছেন। বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ মোতাবেক মামলা রেকর্ডসহ পরবর্তী আইনগত কার্যক্রম গ্রহণ করবেন।’




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: