সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৫০ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সাবমেরিন ক্যাবলের কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হলো বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক:: তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের নতুন কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। সি-মি-উই ৬ কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হওয়ার বিষয়টি ইতোমধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দিয়ে কনসোর্টিয়াম উদ্যোক্তাদের জানিয়ে দেয়া হয়েছে। চিঠিতে বাংলাদেশ এই ক্যাবলে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াইয়ের হনুলুলুতে সি-মি-উই ৬ নিয়ে উদ্যোক্তাদের বৈঠকের বিস্তারিত কাগজপত্র এখনও পাওয়া যায়নি বলে এই কনসোর্টিয়ামে কারা যুক্ত হয়েছেন তা এখনো স্পষ্ট নয়। নতুন এই উদ্যোগের সক্ষমতা, বিনিয়োগ ইত্যাদি বিষয়ে এখনো বিস্তারিত জানাতে পারেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

সি-মি-উই (SEA-ME-WE) হচ্ছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য এবং পশ্চিম ইউরোপের সংক্ষিপ্ত নাম। এই এলাকার মধ্যদিয়ে ক্যাবলটি স্থাপিত বলে প্রতিটি ক্যাবলের নামে এমনটা যুক্ত থাকে। যেমন সি-মি-উই ৪, সি-মি-উই ৫।

সর্বশেষ সি-মি-উই ৫ কনসোর্টিয়ামে এই এলাকার দেশগুলোর মধ্যে ছিল বাংলাদেশ, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, ভারত, পাকিস্তান, সৌদি আরব, কাতার, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, জিবুতি, মিসর, তুরস্ক, ইতালি, ফ্রান্স, মিয়ানমার, ইয়েমেন। এই ১৯ দেশ ১৯টি ল্যান্ডিং পয়েন্টের মাধ্যমে এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

নতুন সি-মি-উই ৬ কনসোর্টিয়ামেও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য এবং পশ্চিম ইউরোপ হতেই দেশগুলো যুক্ত হবে।

এ বিষয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলছেন, ‘সি-মি-উই ৬ এ যোগ দেয়ার বিষয়টি ইতোমধ্যে অফিসিয়ালভাবে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। অতীতের ৫টি কনসোর্টিয়ামই খুব সাকসেসফুলি রান করা হয়েছে। ক্যাবল লাইন কেবলমাত্র হওয়া নয়, ক্যাবল লাইন সিগনেফিকেন্টলি-টেকনোলজিক্যালি যেন সাউন্ড হয় সেটাই ফ্যাক্টর। এই সি-মি-উই রুটে এখন যেকোনো কনসোর্টিয়াম সাকসেসফুল হবে।’

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমাদের সামনে তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল অনিবার্য হয়ে উঠেছে। যেভাবে আমরা ইন্টারনেট ব্যবহার শুরু করেছি তাতে কিছুদিন পরে আমাদের ব্যান্ডউইথের চাহিদা এমন জায়গায় গিয়ে ঠেকবে যে, সি-মি-উই ৫ দিয়ে তা আর সামাল দেয়া যাবে না।’

উল্লেখ্য, দেশে ব্যান্ডউইথের ব্যবহার এক হাজার জিবিপিএস। ২০১৮ সালের নভেম্বরের শেষে দেশে মোট কার্যকর ইন্টারনেট সংযোগের সংখ্যা দাঁড়ায় ৯ কোটি ১৮ লাখ। যার মধ্যে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সংযোগ আছে ৮ কোটি ৬২ লাখ। সংখ্যায় মাত্র ৫৭ লাখ ৩৫ হাজার হলেও ব্রোডব্যান্ডের মাধ্যমেই ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের বেশিরভাগ ব্যবহার হয়ে থাকে।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: এ. আর. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: