সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২০ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সক্রিয় হওয়ার আহবান মিজান চৌধুরীর

ছাতক প্রতিনিধি::
ছাতক ও দোয়ারাবাজার নিয়ে গঠিত নির্বাচনী এলাকা সুনামগঞ্জ-৫ আসনের ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত বিএনপির প্রার্থী মিজানুর রহমান চৌধুরী। জোরপূর্বক ধানের শীষের বিজয় ছিনিয়ে নিতে মরিয়া হয়ে ওঠা আওয়ামীলীগ ক্যাডারদের বাঁধা দিতে গিয়ে দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ ভোটাররা যারা আহত হয়েছেন এবং কারাবন্দী হয়েছেন তাদের প্রতিও তিনি বিশেষ কৃতজ্ঞতা ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেছেন, নির্বাচনের নামে প্রহসন করেছে শাসকদলসহ তার বাহিনী। এই প্রহসনের নির্বাচনে আমার ও দলীয় প্রতীকের প্রতি আস্থাশীল নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি মানুষের প্রতি আমি আজীবন কৃতজ্ঞ। বুধবার এক বিবৃতিতে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান চৌধুরী এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে মিজানুর রহমান চৌধুরী আরো বলেন, ফরমায়েশি রায়ে কারাবন্দি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও জননেতা তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা এবং আওয়ামী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করি। সারা দেশের মতো আমার নির্বাচনী এলাকায়ও ছিল প্রতিকূল পরিবেশ। নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার আগেই গায়েবি মামলা দায়ের করা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের দিন থেকে নির্বাচনী প্রচারণায় নামেন দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা। ওইসময় নির্বাচনী সভা-সমাবেশে অব্যাহত ভাবে বাঁধা দেওয়া হয়। আমরা সেই সব বাঁধা নানা কৌশলে অতিক্রম করে ধানের শীষের গণজোয়ার সৃষ্টি করি। এরপর শাসকদল ধানের শীষের নিশ্চিত বিজয় জেনে শুরু করে নতুন কূটকৌশল। আওয়ামী সন্ত্রাসীদের সাথে পুলিশও হাত মিলিয়ে ভোটের আগের রাত ও ভোটের দিন সর্বশেষ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে।

পুলিশ প্রশাসন ও সরকার দলের ক্যাডারদের হামলা, নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি গ্রামের দায়িত্বশীল নেতাকর্মীদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে ধরপাকড়ের চেষ্টা, পুলিশি হয়রানি, গণগ্রেফতার, ভয়ভীতি প্রদর্শন, ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করায় আমার প্রচারণা ও সভা-সমাবেশ বাধাগ্রস্ত হয়। প্রচারণায় যোগ দেওয়া নেতাকর্মীদের বিভিন্নভাবে হামলা-মামলা, প্রাণনাশের ভয় দেখিয়ে শুরু থেকেই আমাদের দমিয়ে রাখার চেষ্টা করে সরকার দল, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। নির্বাচনের দিন শতাধিক কেন্দ্রে ভয়ভীতি প্রদর্শন, গোলযোগ সৃষ্টি করে কেন্দ্র দখলের মাধ্যমে ভোট ডাকাতি, ব্যালট পেপার ছিনতাই করে নৌকা প্রতীকে সিল মেরে জাল ভোট দিয়ে ব্যালট বাক্স ভর্তি করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তা ও সরকার দলের ক্যাডাররা। নির্বাচনের নামে রীতিমতো ভোট ডাকাতি করা হয়। নির্বাচনের নামে ভোট ডাকাতি করে ধানের শীষের বিজয় ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ অবস্থায় ভোটের দিন বেলা তিনটায় ছাতকে ও পরদিন সুনামগঞ্জ জেলা শহরে পাঁচ আসনের দলীয় প্রার্থীরা মিলে সংবাদ সম্মেলন করে পুনঃনির্বাচন দাবী করেছি।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: