সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৩০ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বর্ষবরণের পার্টিতে পরিবারের ৬ সদস্যকে গুলি করে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: থাইল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশের বাসিন্দা সুচিপ সোরনসাং। বর্ষবরণ উদযাপন করতে শ্বশুরবাড়িতে যান। সেখানে বর্ষবরণের একটি পার্টিতে পরিবারের অন্যদের সঙ্গে ঝগড়া শুরু হয় তার। আর তারই জেরে পরিবারের ছয় সদস্যকে গুলি করে হত্যা করার পর আত্মহত্যা করেন তিনি।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে মর্মান্তিক এ ঘটনার খবর জানানো হয়েছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী, সোমবার মধ্যরাতের পর নতুন বছর শুরু হওয়ার মাত্র ১০ মিনিটের মাথায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ বলছে, বর্ষবরণের একটি অনুষ্ঠান চলার সময় সুচিপ অনেক বেশি মদপান করেন। পরে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে ঝগড়া শুরু হয় তার। ঝগড়ার এক পর্যায়ে নিজের পিস্তল বের করে গুলি করা শুরু করেন তিনি। নিহতের মধ্যে তার নয় বছর বয়সী ছেলে ও ছয় বছর বয়সী মেয়েও রয়েছে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল লারপ কামপাপান জানিয়েছেন, ‘নিহতরা সবাই সুচিপের পরিবারের সদস্য। আমরা ধারণা করছি, তাদের মাথায় অথবা শরীরে গুলি করা হয়। শ্বশুরবাড়িতে স্বাগত না জানানোয় ক্ষিপ্ত হয়ে এমন কাজ করেন তিনি।’

নিহত বাকী চার জনের মধ্যে দু’জন নারী ও দু’জন পুরুষ। তাদের বয়স ৪৭ থেকে ৭১ বছরের মধ্যে। তারা সুচিপের স্ত্রীর আত্মীয়। সবাইকে গুলি করে হত্যার পর সুচিপ নিজের মাথায় গুলি করেন। তবে সৌভাগ্যক্রমে তার পরিবারের সদস্যদের একজন বেঁচে যান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ আরও জানায়, মাদক-সংক্রান্ত অপরাধীদের তালিকায় নাম আছে সুচিপের। মাদক-সংক্রান্ত অপরাধে এর আগে জেলও খেটেছেন তিনি। তবে পরিবারের বিরুদ্ধে সহিংস ঘটানোর রেকর্ড নেই তার। উল্লেখ্য, থাইল্যান্ডে রেকর্ড পরিমাণ মানুষের কাছে বন্দুক আছে। তবে এরকম গণহত্যার ঘটনা খুব কম।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: