সর্বশেষ আপডেট : ৪৯ মিনিট ৫১ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পুলিশের সঙ্গে এমন হলে তার ভেতরটায় কি হতো

নিউজ ডেস্ক:: আদালত প্রাঙ্গণে হাতকড়া পরিহিত বাবা। গিয়েছিলেন জামিন নিতে। কিন্তু জামিন হয়নি। তাই গন্তব্য কারাগার। যাওয়ার আগে প্রিয় সন্তানের মুখে আদর করে চুমু দিচ্ছেন। এঁকে দিচ্ছেন ভালোবাসার চিহ্ন। এসময় পুলিশ তার হাত টেনে নিয়ে যায়।

হৃদয় নাড়ানো এমন একটি ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। ছবিটি দেখে অনেকেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। দেশের রাজনীতির কড়া সমালোচনাও করেন।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। তার স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো।

‘গত কিছুদিন যাবত যা হচ্ছে তা দেখে একটা কথাই বারবার মনে হচ্ছিলো, বাংলাদেশ নিডস অ্যামপ্যাথি। কাউকে গুম করার আগে, আঘাত করার আগে ভাবা দরকার এই আঘাত আমার উপর আসলে কেমন লাগবে আমার। কোনো বাবাকে সন্তানের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়ার আগে ভাবা দরকার, আমার ক্ষেত্রে এটা হলে কেমন লাগবে।’

‘কালকে কোর্ট প্রাঙ্গণে হাতকড়া লাগানো বাবার সন্তানকে চুমু খাওয়ার ছবিটা দেখে এক বিনিদ্র রাত কেটেছে আমার। বাবারা সন্তানদের কাছে সুপারম্যান। সেই সুপারম্যানের এই অসহায়ত্ব আমাকে পরাজিত করেছে। আমি ভাবছিলাম, ‘উই নিড অ্যামপ্যাথি’! এমনকি যে পুলিশ ভাই তাকে বেঁধে নিয়ে যাচ্ছিলেন তারও হয়তো এরকম একটা বাচ্চা আছে। তারও অবকাশ আছে ভাবার, আহারে আমার সঙ্গে এরকম হলে আমার ভেতরটায় কি হতো?’

সবশেষ মোস্তফা সরয়ার ফারুকী লিখেন, ‘অ্যামপ্যাথি, অ্যামপ্যাথি ইজ হোয়াট উই নিড। এটা একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরে বলেছিলাম, এখনও বলি।’




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: