সর্বশেষ আপডেট : ২৭ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শিশিরের কথা মাথায় রেখেই খেলতে হবে : সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক:: শীতের সময়ে অর্থাৎ ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি-মার্চ পর্যন্ত সময়ে দেশের মাটিতে খেলা হলে ম্যাচের বড় একটা নিয়ামক হিসেবে আবির্ভূত হয় শিশিরের প্রভাব। সন্ধ্যার পরেই আউটফিল্ড ভারী হয়ে যায়, বারবার বল ভিজে যাওয়ার কারণে বোলারদের বল গ্রিপ করতেও হয় বেশ ঝামেলা।

শিশিরের এ প্রভাব থেকে বাঁচতেই সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে ম্যাচের সময় বিকেল ৪টা থেকে এগিয়ে আনা হয়েছিল দুপুর ২টায়। পরে ফ্লাডলাইটের সমস্যায় সে ম্যাচ হয় বেলা ১২টায়।

বৃহস্পতিবার মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিকেল পাঁচটায় শুরু হওয়া ম্যাচে দেখা গিয়েছে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকেই শিশিরের দৌরাত্ম্য। বোলিং করার সময় বারবার রুমাল দিয়ে বল মুছে নিচ্ছিলেন সাকিব আল হাসান, মেহেদি হাসান মিরাজরা। এমনকি মাত্রাতিরিক্ত শিশিরের কারণে পেসাররাও স্বাচ্ছন্দ্যে বোলিং করতে পারেননি।

এমতাবস্থায় সিরিজের শেষ ম্যাচটি কি এগিয়ে আনা যায়? স্বাগতিক দল হিসেবে এটুকু কি আয়োজকদের কাছে চাইতে পারে বাংলাদেশ?- ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের কাছে জানতে চাওয়া হয় এ তথ্য।

তখন সাকিব জানান শেষ সময়ে এসে ম্যাচের সময় পরিবর্তন হয়তো সম্ভব না। তাই শিশিরের কথা মাথায় রেখেই খেলতে হবে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচে।

সাকিব বলেন, ‘কিছু কিছু জিনিস আসলে ভাগ্যের ওপর ছেড়ে দেওয়া ভালো। আল্লাহ যেটা করবেন ভালোর জন্যই করবেন বলে মনে করি। আমার কাছে মনে হয় না খুব একটা প্রভাব ফেলবে, যদিও আমর জানি যে শিশির বড় একটা প্রভাব ফেলে। এখন এটা মেনে নিয়েই খেলতে হবে যে পরে বোলিং করলে শিশির থাকবে।’

এসময় সাকিব আরও জানান যে শিশিরের কারণে ব্যাটিং করাটাও সহজ হয় না। অধিনায়কের ভাষ্যে, ‘এমনকি এটা ব্যাটসম্যানদের জন্যও যে ব্যাটিং করা সহজ করে দেয় তাও আমি বলব না। বলটা পড়ার পর বেশ জোরে আসে, স্বাভাবিকভাবে পেসও ব্যাটসম্যানদের জন্য অ্যাডজাস্ট করা বেশ কঠিন হয়ে যায়। তো দুইটা সাইডই আছে। আর এই সময়ে এসে এক দিন আগে আমার মনে হয় না ম্যাচের সময় পরিবর্তন করার কোনো অপশন আছে বা তৈরি হবে।’

শিশিরের প্রভাবের কারণে মিরপুরের উইকেটের ব্যাপারেও খুব বেশি আলোচনায় যেতে চাননি সাকিব। তবে একই কারণে দলের বোলারদের প্রতিও নেতিবাচক হতে চান না তিনি।

‘আসলে শিশিরের প্রভাব না থাকলে বোঝা যেত উইকেট কেমন। শিশিরের কারণে উইকেট বোঝা মুশফিক ছিল যে ওটা স্লো ছিল না ফাস্ট ছিল। যেহেতু শিশির অনেক বড় একটা ফ্যাক্টর ছিল, এখানে খুব বেশি নেতিবাচক চিন্তা আমার মনে হয় না করা ঠিক হবে।’ – বলেন সাকিব।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: