সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২০ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আজ রোকেয়া দিবস

রাজিব বাবু, শাবিপ্রবি:: বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন, খ্যাতিমান বাঙালি সাহিত্যিক, সমাজ সংস্কারক ও মুসলিম নারী জাগরণের অগ্রদূত। যে সময়ে মুসলিম মেয়েদের চার দেয়ালের মাঝে বন্দী জীবন কাটাতে হতো ঠিক সে সময়ে তিনি নারী ব্যবস্থা শুরু করেন। সেই মহান মহীয়সী নারী ১৮৮০ সালের ৯ই ডিসেম্বরে রংপুরের পায়রাবন্দ গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।

বেগম রোকেয়ার পিতা জহিরুদ্দীন মুহাম্মদ আবু আলী সাবের এবং মাতা সাবেরা চৌধুরানী। শৈশবে বেগম রোকেয়া বড় ভাই আবুল আসাদ ইব্রাহীম ও বড় বোন করিমুন্নেসা খানমের প্রভাবে তিনি শৈশব থেকেই কুসংস্কার ঘৃণা করতে শেখেন এবং বিদ্যালাভ করেন।

১৮৯৮ সালে রোকেয়ার বিয়ে হয় বিহারের ভাগলপুর নিবাসী সৈয়দ সাখাওয়াৎ হোসেনের সঙ্গে। বিবাহের পর রোকেয়ার নামের সাথে সাখাওয়াত হোসেন যুক্ত হয়। সৈয়দ সাখাওয়াৎ ছিলেন সমাজসচেতন, কুসংস্কারমুক্ত, প্রগতিশীল দৃষ্টিভঙ্গিসম্পন্ন উদার ও মুক্তমনের অধিকারী। স্বামীর উৎসাহ ও অনুপ্রেরণায় রোকেয়ার সাহিত্যচর্চার সূত্রপাত ঘটে। তবে রোকেয়ার বিবাহিত জীবন বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। ১৯০৯ সালের ৩ মে সাখাওয়াৎ হোসেন পরলোক গমন করেন।

স্বামীর মৃত্যুর পর সমাজসেবা এবং সমাজে নারী শিক্ষা বিস্তারে তিনি মনোনিবেশ করেন। নারীদের শিক্ষার জন্য বেগম রোকেয়া ১৯০৯ সালে ভাগলপুরে পাঁচজন ছাত্রী নিয়ে সাখাওয়াত মেমোরিয়াল গার্লস স্কুল স্থাপন করেন। মুসলিম নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন ১৯১৬ সালে “আঞ্জুমান খাওয়াতিনে ইসলাম” (মুসলিম মহিলা সমিতি) নামে একটা সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন।

শুধু শিক্ষায় নয়, বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন সাহিত্য সাধনার মধ্যদিয়ে তিনি মুসলিম সমাজের কুসংস্কার ও জড়তা দূর করার চেষ্টা করেছেন। “পুরুষের সমকক্ষতা লাভের জন্য আমাদিগকে যাহা করিতে হয়, তাহাই করিব। যদি এখন স্বাধীনভাবে জীবিকা অর্জ্জন করিলে স্বাধীনতা লাভ হয়, তবে তাহাই করিব। আবশ্যক হইলে আমরা লেডিকেরানী হইতে আরম্ভ করিয়া লেডিমাজিস্ট্রেট, লেডিব্যারিস্ট্রার, লেডীজজ — সবই হইব!” (বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন)।

বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ মতিচূর (১ম খন্ড ১৯০৫, ২য় খন্ড ১৯২১), Sultana’s Dream(১৯০৮) পদ্মরাগ (১৯২৪), অবরোধবাসিনী (১৯২৮)।

বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন ১৯৩২ সালের ৯ই ডিসেম্বরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। সারাদেশে ৯ই ডিসেম্বরে রোকেয়া দিবস হিসেবে পালন করা হয়৷ বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন বিবিসির জরিপকৃত (২০০৪) সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালির তালিকায় ৬ষ্ঠ স্থানে অধিষ্ঠিত হন।

তথ্য সূত্রঃ প্রথম আলো, ইত্তেফাক, বাংলা ভাষা সাহিত্য জিজ্ঞাসা, বিডিনিউজ।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: