সর্বশেষ আপডেট : ২৪ মিনিট ১৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে’

নিউজ ডেস্ক:: উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে বলে অভিযোগ জানিয়েছে কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে নির্বাচনে অংশ দিতে চাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমরান এইচ সরকার।

সোমবার (০৩ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশনে মনোনয়ন বাতিলের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে আপিল দাখিলের জন্য ইসিতে এসে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।

ইমরান এইচ সরকার বলেন, ‘গতকাল (রোববার) মনোনয়ন বাছাইয়ে কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে আমার প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে। যে অজুহাতে বাতিল করা হয়েছে সেটি কোনো বড় অজুহাতই নয়। কেননা এ অজুহাতে বাতিল করা হলে, আমরা মনে হয় বাংলাদেশে কারো মনোনয়নই টিকবে না। উদ্দেশ্যেপ্রণোদিতভাবে আমার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।’

নিজের মনোনয়ন কীভাবে বাতিল হয়েছে বলতে গিয়ে ইমরান এইচ সরকার বলেন, ‘আমারটায় বলা হয়েছে ভোটারদের যে তালিকা দিয়েছি এতে গ্যাপ রয়েছে। ১ শতাংশ তালিকায় গ্যাপ রয়েছে। আমি তালিকা দেখেছি, যত ভোটারের স্বাক্ষর জমা দিয়েছি তা যথাযথই দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে ১০ জন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে নানা অজুহাতে। মনোনয়নপত্রে সঙ্গে ভোটারের স্বাক্ষর জমা দেয়া হয়েছে, কারো নামের বানানের ভুল, কারো সিরিয়ালে ভুল বা ভোটার পরিচয় তদন্তে করতে গিয়ে তারা একজনকে বাড়িতে পাননি। এসব কারণে মনোনয়নগুলো বাতিল করা হয়েছে। এখন ভোটাররা সমর্থন দিয়ে কি বাড়িতে সবসময় বসে থাকবেন?’

তিনি আরও বলেন, ‘নানা অজুহাত বের করে বেছে বেছে বিশেষ করে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বাতিল করা হচ্ছে। এটার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য কী, আমি জানি না। এর মাধ্যমে যারা বিভিন্ন দলের বাহিরে সাধারণ নাগরিক নির্বাচন করতে চায় তাদেরকে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। আমি মনে করি যে, এর মধ্য দিয়ে সবার জন্য যে সমান সুযোগ নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী তা নষ্ট করা হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র অনুযায়ী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ২ হাজার ২৭৯ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ ও ৭৮৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। তবে যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে তারা আজ (৩ ডিসেম্বর, সোমবার) থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে আপিল করতে পারবেন। ইসি আবদনের ওপর শুনানি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবে।

জানা গেছে, আগামী ৫ ডিসেম্বর (বুধবার) পর্যন্ত মনোনয়ন ফিরে পেতে ইসিতে আপিল করা যাবে। আপিল আবেদন পাওয়ার পর ৬-৮ ডিসেম্বর আপিল আবেদনের শুনানি শেষে সিদ্ধান্ত জানাবে ইসি। আপিলের জন্য প্রার্থীদের অবশ্যই রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে যেতে হবে। এদিকে যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে তারা সোমবার সকাল থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে আপিল করার কার্যক্রম শুরু করেছেন।



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে. এ. রাহিম. সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: