সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ধর্ম অবমাননার অভিযোগের জবাবে যা বললেন ফারুক

বিনোদন ডেস্ক:: ‘ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করিনি’ সম্প্রতি ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুকের এমন এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ ওঠে। সোশ্যাল মিডিয়াতে তাকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে।

তবে এই ঘটনায় নায়ক ফারুকের হয়ে সমালোচনার প্রতিবাদ করেছেন অনেকেই। এবার এ বিষয় নিয়ে মুখ খুলেছেন ফারুক। ধর্ম অবমাননার অভিযোগের জবাবে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন তিনি।

এই ভিডিও বার্তায় মিঞা ভাই খ্যাত এই নায়ক বলেন, ‘আমার প্রিয় ভাই ও বন্ধুগণ আজকে বুকের ভেতরে দুঃখ নিয়ে কিছু কথা বলতে চাই। সারাজীবন মানুষের কথা বলেছি। আমাকে নিয়ে যে ধরনের কথা বার্তা ফেসবুকে বলা হয় আমি আসলেই মর্মাহত। মানুষ এত নিচে নামতে পারে আমি ভাবতেও পারিনি। ইসলাম নিয়ে আমি মন্দ কথা বলবো? আমি নিজে একজন হাজী আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। আমার স্ত্রী ফারহানা, মেয়ে ফারিহা তাবাসসুম, ছেলে রওশন হোসেন পাঠান তারা সবাই হাজী। একটা মসজিদ আছে আমার নিজের, এটা আমার বড় দাদা দিয়ে গেছেন। সেই মসজিদের জায়গা হলো ৩০ বিঘা। মসজিদের যে অঞ্চল টুকুতে মানুষ নামাজ পড়ে শুধু সেটাই সাড়ে ৫ বিঘা। ওই মসজিদের মুতাওয়াল্লি আমি।’

চিত্র নায়ক ফারুক আরও বলেন, ‘আমি একজন মুসলিম। বলা হয় ধর্ম যার যার, ওই ধর্ম নিয়ে (মন্দ) কথা বলার কোনো অধিকার কারো নেই। আমরা যুদ্ধ করেছি এই দেশ স্বাধীন করার জন্য। পরাধীনতার যে শিকল মানুষের গলায় দিয়ে দেওয়া হয়েছিল সেটাকে ভেঙে চুরে ৩০ লাখ মানুষের বুকের রক্ত দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ডাকে এই দেশ স্বাধীন করা হয়েছে। আপনাদের কাছে অনুরোধ জানায়, কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করবেন না। এতে কোনো ভালো ফল পাবেন না। সমস্ত কিছু নির্ভর করে সত্য ও সুন্দরের ওপর। আমি তেমন কোনো কথাই বলিনি যেটা কোনো ধর্মকে আঘাত করতে পারে। আমি যদি বলে থাকি উপরে রাব্বুল আলামীন সাক্ষী আছেন। বিশ্বাস করুন আমি এই দেশের মাটিকে ভালোবাসি। সব ধরনের মানুষকে ভালোবাসি। কে হিন্দু, কে মুসলমানম কে খ্রিষ্টান, কে বৌদ্ধ আমি এগুলো ফিল করি না, কারণ আমি একজন মানুষ।’

চিত্রনায়ক ফারুকের এই ভিডিও বার্তাটিও অনেকের ফেসবুকের ওয়ালে ওয়ালে ঘুরছে। এই ভিডিওটি পোস্ট করে তরুণ নায়ক জয় চৌধুরী লিখেছেন,‘বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি আকবর হোসেন পাঠান (নায়ক ফারুক) ভাইয়ার বিরুদ্ধে নোংরা রাজনীতির ও অপপ্রচার এর বিরুদ্ধে সবাই সোচ্চার হন এবং সত্যিটা জানুন বেশি বেশি করে শেয়ার করে সত্যিটা সবাইকে জানার সুযোগ করে দিন।’

নায়ক ফারুক স্কুলজীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ১৯৬৬ সালে ছয়দফা আন্দোলনে যোগ দেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্নেহভাজন ছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য অনুপ্রাণিত করেছিলেন।

চিত্রনায়ক, পরিচালক, প্রযোজক- একাধিক পরিচয়ে তিনি পরিচিত। সব ছাপিয়ে ভক্তদের কাছে তার বড় পরিচয় তিনি ‘মিয়া ভাই’। এক সময় ‘সুজন সখী’, ‘নয়নমনি’, ‘সারেং বৌ’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সাহেব’, ‘আলোর মিছিল’, ‘দিন যায় কথা থাকে’সহ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেন। রাজনীতির মঞ্চেও সরব এ অভিনেতা।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: