সর্বশেষ আপডেট : ৪২ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

যেসব আসনে লড়বেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা

নিউজ ডেস্ক:: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজ নিজ আসনে লড়তে চান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা। তাদের মধ্যে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী ছাড়া অন্যরা এর আগেও জয় পেয়েছেন।

তবে ফ্রন্টের প্রধান গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন অংশ নেবেন কি না, তা নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা। কার্যকরী কমিটির সভাপতি সুব্রত চৌধুরী বলছেন, বয়স ও শারীরিক কারণে তার ভোটে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা নেই।

মহাজোটের প্রার্থীদের মোকাবিলায় ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনের মাঠে থাকবেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা। কয়েকটি বৈঠকে তারা নিজ নিজ আসনে নির্বাচনে মত দিলেও আসন বণ্টনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বলছেন, এই মুহূর্তে নির্বাচনটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ, আসন ভাগাভাগির বিষয়ে পরে বসা হবে।

লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নির্বাচন করতে চান জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব। ১৯৯১ সালের পর চারটি নির্বাচন করে তিনি জয় পেয়েছেন ১৯৯৬ সালে একবার। আর ১৯৯১, ২০০১ ও ২০০৮ সালে পরাজিত হন ঐক্যফ্রন্টের এই শীর্ষ নেতা।

জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন কুমিল্লা-৪ আসনে লড়তে চান। ১৯৯১ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আসনটি বিএনপির দখলে ছিল। চারবারই বিএনপির প্রার্থী ছিলেন মঞ্জুরুল আহসান মুন্সী। তিনি এবারও ধানের শীষের মনোনয়নপ্রত্যাশী।

ড. কামালের অংশ নেওয়া অনিশ্চিত হলেও গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু দুটি আসনে নির্বাচন করতে চান। ঢাকা-৩ আসনের কেরানীগঞ্জ উপজেলা দুটি আসনে ভাগ হয়ে ঢাকা-২ ও ৩ হওয়ায় দুটিতেই ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করতে চান ঐক্যফ্রন্টের এই শীর্ষনেতা।

শেষবার ১৯৮৬ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে ঢাকা-৩ আসনে জয়ী হয়েছিলেন মন্টু। ওই নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেয়নি। ১৯৯১ সালে আওয়ামী লীগের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান বিএনপির আমান উল্লাহ আমানের কাছে। আসন ভাগের পর দুই আসনে ২০০৮ সালে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন যথাক্রমে মতিউর রহমান ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

চট্টগ্রাম-১৪ আসনে মনোনয়ন চাচ্ছেন গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি সুব্রত চৌধুরী। এ আসনে বিএনপির শরিক এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) অলি আহমেদও প্রার্থী। তিনি একাধিকবার এ আসনের এমপি নির্বাচিত হন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আরেক শীর্ষনেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান মৌলভীবাজার-২ আসনে। এর আগে তিনি এ আসনে আওয়ামী লীগের হয়ে নির্বাচন করেছেন, জয় পেয়েছেন একবার। ২০০৮ সালে বিএনপির প্রার্থী ছিলেন আবেদ রাজা।

নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না বগুড়া-২ আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করতে চান। ১৯৯১ সাল থেকে তিনি এ আসনে তিনবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। প্রথমবার জনতা মুক্তি পার্টি ও পরের দুবার আওয়ামী লীগের হয়ে ভোট করে একবারও জিততে পারেননি।

বিকল্পধারার (একাংশ) মহাসচিব শাহ আহমেদ বাদল নির্বাচন করবেন লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) আসনে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: