সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘ভোটের পরিবেশ নিশ্চিত করতে পারেনি ইসি’

নিউজ ডেস্ক:: জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন বলেছেন, ‘জনগণ ভোট দিতে চায় কিন্তু ভোট দেয়ার পরিবেশ এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি সরকার ও নির্বাচন কমিশন (ইসি)।’

রাজধানীর গুলিস্তানে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বুধবার মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলন নামে একটি সংগঠনের প্রার্থীরা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির হয়ে জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য আসলে এসব কথা বলেন তিনি।

আবদুল মালেক রতন বলেন, ‘জনগণের মধ্যে ব্যাপক নির্বাচনী উচ্ছাস কিন্তু জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগের উপযোগী লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করা হচ্ছে না। এখনও পুলিশ ও প্রশাসনের আচরণ নিরপেক্ষ নয়। প্রতিনিয়ত বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে।’

এ সময় মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের নেতাদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য দেন জেএসডি সহ-সভাপতি তানিয়া রব, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন।

মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি স্বরূপ হাসান শাহীন বলেন, ‘আমাদের নিবন্ধন না দেয়া নির্বাচন কমিশনের অগণতান্ত্রিক ও আমলাতান্ত্রিক মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ। নির্বাচন কমিশন নির্বাচনী যে আইনকানুন করেছে, তাতে কোনো সৎ, কোনো সাধারণ মানুষ, কোনো শ্রমিক, কৃষক, শিক্ষক নির্বাচন করতে পারবেন না। মাফিয়াদের নির্বাচন করার পথ করে নির্বাচন কমিশন জাতির সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।’

এ সময় মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলন একটি নির্বাচনমুখী সংগঠন হিসাবে আদর্শিক নৈকট্য সংগঠন জেএসডির প্রতীক থেকে নির্বাচন করার সুযোগ দেয়ায় তাদের অভিবাদন জানান তিনি।

মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের স্বরূপ হাসান শাহীন, জিল্লাল শিকদার, জালাল বাবু, ফারজানা ইয়াসমিন বেবি, পারিজাত পাল, মিল্টন হোসেন, সামসুদ্দিন সাচ্চুসহ ২০ জনের অধিক নেতা জেএসডির দফতর থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: