সর্বশেষ আপডেট : ২২ মিনিট ১৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে

নিউজ ডেস্ক:: গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় মাহেন্দ্র ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হয়ে ৭ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার মারা গেছেন টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অফিস সহকারী রেকর্ড কিপার অনিমেষ বসু (৪৫)। অন্যদিকে তার মেয়ের আজ জীবনের প্রথম পাবলিক পরীক্ষা। আর বাবার লাশ দেখেই তাকে এ পরীক্ষায় অংশ নিতে হচ্ছে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে ঢাকার আয়শা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহত অনিমেষ বসু গোপালগঞ্জ জেলা শহরের নবীনবাগ এলাকার চৈতন্য বসুর ছেলে।

নিহতের ছোট ভাই বিপুল বসু জানান, গত ১১ নভেম্বর একটি ইঞ্জিন চালিত মাহেন্দ্র গোপালগঞ্জ থেকে টুঙ্গিপাড়া আসার পথে গিমাডাঙ্গা এলাকায় একটি ইজি বাইককে ওভারটেক করতে গেলে বিপরিত দিক থেকে আসা গোল্ডেন লাইন পরিবহনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে অনিমেষ বসুসহ চারজন আহত হন। পরে তাদেরকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রথমে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রূপালী ব্যাংক টুঙ্গিপাড়া শাখার পিয়ন লিমন মুন্সী (২৪) মারা যান।

পরে অনিমেষের অবস্থার অবনতি ঘটলে প্রথমে খুলনা ও পরে ঢাকার ঢাকার আয়শা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ৭ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর শনিবার রাতে তিনি মারা যান। এ নিয়ে ওই দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হলেন।

বিপুল জানান, রবিবার নিহতের ছোট মেয়ে পিএসসি পরীক্ষার্থী তৈশী বসুর জীবনের প্রথম পাবলিক পরীক্ষা। সে কিভাবে পরীক্ষা দেবে বুঝতে পারছে না। তাছাড়া পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও শোকে পাথর হয়ে পরেছেন।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: