সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ২২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দিরাইয়ের ডাকাত মালেকের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ দায়ের 

নিজস্ব সংবাদদাতা :: 
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার একাধিক ডাকাতি মামলার আসামী ডাকাত সর্দার আব্দুল মালেকসহ ২ জনের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গত ৫ অক্টোবর উপজেলার কুলঞ্জ ইউনিয়নের উত্তর সুরিয়ারপাড় গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারিকের পুত্র তাজ উদ্দিন বাদী হয়ে এই অভিযোগটি দায়ের করেছেন।
অভিযুক্তরা হচ্ছেন একই গ্রামের সাহেব আলীর পুত্র ডাকাত সর্দার আব্দুল মালেক ও মৃত আব্দুল অদুদ এর পুত্র রুহেল। অভিযোগে প্রকাশ, ডাকাত মালেক বাহিনী দীর্ঘদিন ধরে গ্রামের লোকজনের গরু ছাগল জোড়ামূলে ধরে নিয়ে যাওয়াসহ সাধারন মানুষের নিকট থেকে টাকা ধান জবরদস্তি করে আদায় করে যাচ্ছে। নারী নির্যাতনের মত জগন্য ঘটনাও সংগঠিত করছে ডাকাত মালেক বাহিনী। গত বছর ডাকাত মালেকের সহযোগী মিনার উদ্দিন গ্রামের একটি মেয়েকে জোরপূর্বক অপহরন করতে গিয়ে খুন হয়। মিনারের সহযোগী ডাকাত মালেক ও রুহেল ইদানিং এক প্রবাসীর স্ত্রীকে নানাভাবে কুপ্রস্তাব দিয়ে উত্যেক্ত বিরক্ত করে আসছে।
২ বখাটের যৌন হয়রানীমূলক কথাবার্তা ও আচার আচরনে অতিষ্ট হয়ে গ্রামের ঐ প্রবাসীর স্ত্রী বর্তমানে গৃহবন্দী অবস্থায় আছেন। দীর্ঘদিনের উত্যেক্ত বিরক্ত করার ধারাবাহিকতায় গত ৪ অক্টোবর রবিবার বিকেল ৪টায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে গিয়ে তার পুত্রবধূকে ধর্ষনের উদ্দেশ্যে হুমকি দিয়ে আসে মালেক ও তার সহযোগী রুহেল। সুরিয়ারপাড় গ্রামবাসী জানান, মালেকের সহযোগী রুহেল কে জিআর ১৩৩/২০১৬ নং মামলায় ইতিপূর্বে জেলহাজতে পাঠান আদালত। গত ১৮/৮/২০১৬ইং তারিখে তাদের বিরুদ্ধে দিরাই থানায় ঐ মামলাটি দায়ের করেন সাবেক ইউপি সদস্য কবি আবুবক্কর সাগরের পুত্র হাফেজ বদরুল ইসলাম হামজা।
সরেজমিন তদন্তে তদন্ত কর্মকর্তা দিরাই থানার এসআই মেহেদী হাসান (বিপি নং৮৮১৫১৭০৪৭০) বিজ্ঞ আদালতে রুহেল ও ডাকাত মালেকের বিরুদ্ধে গত ৩১/৭/২০১৭ইং তারিখে ১০৬ নং অভিযোগপত্র দাখিল করেন। রুহেল একই আদালতে বিচারাধীন জিআর ৮৯/২০১৬,জিআর ৮৩/২০১৬ মামলার আসামী বলেও পুলিশের চার্জসীটে উল্লেখ করা হয়। রুহেল মিয়ার প্রধান সহযোগী আব্দুল মালেক ওরফে ডাকাত মালেক একই আদালতে বিচারাধীন জিআর ৮৯/১৬,জিআর ৮৩/২০১৬,জিআর ১৭৭/২০১৫, জিআর ১৩১/২০১২,জিআর ৭৩/২০১১,জিআর ১১৯/২০১০,জিআর ৭১/২০১০,জিআর ৮০/২০০৯,জিআর ৫৮/২০০৮ ও জিআর ১৭/২০০৭ সহ একাধিক মামলার আসামী। এছাড়াও ডাকাত মালেক বাংলাদেশ দন্ডবিধি আইনের ৩৯৫/৩৯৭ ধারায় বিচারাধীন দায়রা ৩৮৪/২০১৬ (জিআর ১৫৩/২০১২) নং মামলার অন্যতম আসামী হিসেবে পলাতক রয়েছে বলে জানায় দিরাই থানা পুলিশ। দিরাই থানা ওসি গোলাম মোস্তফা বলেন,মালেকসহ চিহ্নিত ডাকাতদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ প্রশাসন তৎপর রয়েছে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: