সর্বশেষ আপডেট : ২৯ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বর্ধিত ভর্তি ফি প্রত্যাহারের দাবিতে শাবিতে মানববন্ধন

শাবি প্রতিনিধি:: অনার্স প্রথম বর্ষ প্রথম সেমিস্টারে ভর্তির জন্য ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বর্ধিত নির্ধারিত ভর্তি ফি প্রত্যাহার করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার দুপুরে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

গতকাল বুধবার (৭ই নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শাবির কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে শাবির ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নির্ধারিত বর্ধিত ভর্তি ফি প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এসময় মানববন্ধনে অনেকের হাতে হাতে লেখা ‘শিক্ষা কোন পণ্য নয়, শিক্ষা আমার অধিকার’, ‘বর্ধিত ভর্তি ফি বাতিল কর’, ‘একটা টাকাও বর্ধিত ফি ছাত্র সমাজ মানে না’, ‘শিক্ষার আর্থিক দায়িত্ব রাষ্ট্রকে নিতে হবে’, ‘ভর্তি ফি বাড়লো কেন প্রশাসন জবাব চাই’ স্লোগান সংবলিত পোস্টার প্লাকার্ড দেখা যায়। মানববন্ধনে রসায়ন বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র মোঃ রাসেলের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন গণিত বিভাগের ছাত্র সিরাতুল মোস্তাকিম, আই.পি.ই বিভাগের ছাত্র নাইম আদিব, শাবির সিনিয়র শিক্ষার্থী খৈরম কামেস্বর, সৌরভ মোস্তফা এবং সমাজতাত্ত্বিক ছাত্রফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাজিরুল আযম।

সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে বর্ধিত ভর্তি ফি প্রত্যাহারের জোর দাবি জানিয়ে বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, আমরা ভর্তি ফি বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে বিভিন্ন মহল থেকে আমাদের জানায় মুদ্রাস্ফীতির কারণে এই ফি বাড়ানো হয়েছে। শুধু মুদ্রাস্ফীতির জন্য যদি ভর্তির ফি বাড়ানো হয়ে থাকে, তাহলে ভার্সিটি প্রশাসনের উচিত ইউ.জি.সি.’র কাছ থেকে অতিরিক্ত বাজেট নিয়ে এসে সেই ঘাটতি পূরণ করা। এটা কোন ভাবেই শিক্ষার্থীদের উপর চাপিয়ে দেওয়া উচিত নয়।’
বক্তারা ইউ.জি.সি.’র ২০ বছর মেয়াদী কৌশলপত্রের নিন্দা জানিয়ে বলেন “ইউজিসির ২০ বছর মেয়াদী কৌশলপত্র” এর কারণেই ধীরে ধীরে পাবলিক ভার্সিটিগুলোকে বেসরকারিকরণের দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে বুধবারে একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরী সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক শাবির ২০১৮-১৯ সেশনের জন্য ভর্তি ফি ৭ হাজার ৫০০ শত টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। শাবির রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিগত চারবছর পরে এবার ভর্তি বাড়ানো হয়। এবারের জন্য ভর্তি নির্ধারণ করা হয়েছে ৭৫০০ টাকা পূর্বে ছিকো ৬৮৫০ টাকা। বৃদ্ধির হার ১০ শতাংশের চেয়েও কম।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: