সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বড়লেখায় প্রাণ হারানো শিশুর পরিবারকে আইনী সহায়তার আশ্বাস অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের

বড়লেখা প্রতিনিধি:: মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ৪৮ ঘন্টার ধর্মঘট চলাকালে উপজেলার চান্দগ্রামে অ্যাম্বুলেন্স আটকে রাখায় মারা যাওয়া ৭ দিনের কন্যাশিশুর পরিবারকে আইনী সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) আবু ইউছুফ। মঙ্গলবার রাতে তিনি ওই শিশুর বাড়িতে গিয়ে তার বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা বলে পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ আইনগত সহায়তার আশ্বাস এবং তাদের সান্তনা দেন।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) আবু ইউছুফ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটা একটা জঘন্য ঘটনা। যুদ্ধক্ষেত্রেও মানুষ চরম শক্রকে চিকিৎসা দেয়। কিন্তু এদের বিবেক বাঁধল না। আমি পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশে তাদের বাড়িতে এসেছি। তাদের সমবেদনা জানিয়েছি। স্যারের পক্ষ থেকে মামলা করার জন্য তাদের উৎসাহ দিয়েছি। তারা মামলা দিলে আমরা সর্বোচ্চ আইনগত সহায়তা দেব।

শিশুকন্যার পিতা প্রবাসী কুটুন মিয়া বলেন, ‘সাত দিনের বাচ্চা। মামলা করলে লাশ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্ত করা হতে পারে। এরকম অনেকেই বলছেন। ওই বিষয়টা নিয়ে সবার সাথে পরামর্শ করছি। দেখি কি করা যায়।’

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের সঙ্গে বড়লেখা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক, পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জসীম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গত ২৮ অক্টোবর বড়লেখা থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বড়লেখা উপজেলার বড়লেখা সদর ইউনিয়নের অজমির গ্রামের প্রবাসী কুটন মিয়ার সাতদিনের কন্যাশিশুকে নিয়ে যাওয়ার সময় পরিবহন শ্রমিকরা চান্দগ্রামে প্রায় দেড় ঘন্টা অ্যাম্বুলেন্স আটকে রাখে। এতে চান্দগ্রামে অ্যাম্বুলেন্সের মধ্যেই শিশুটি মারা যায়।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: কে এ রহিম সাবলু, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪ (নিউজ) ০১৭১২৮৮৬৫০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: